Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৫ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৩৬
রংপুরের পলাতক জঙ্গিরা ধরাছোঁয়ার বাইরে
ফের নাশকতার আশঙ্কা
শাহজাদা মিয়া আজাদ, রংপুর

জাপানি নাগরিক ও মাজারের খাদেম হত্যা এবং বাহাই নেতাকে হত্যাচেষ্টা মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক ৯ জঙ্গিকে ধরতে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারির চারদিন পেরিয়ে গেলেও কোনো অগ্রগতি নেই। একজন জঙ্গির ছায়াও স্পর্শ করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তারা রয়ে গেছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। ফের তারা হত্যাকাণ্ড ও নাশকতা চালাতে পারে বলে আশঙ্কা করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। জানতে চাইলে পুলিশের রংপুর রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, পলাতক জঙ্গিদের ধরতে বৃহস্পতিবার থেকে সর্বত্র কড়া সতর্কতা জারি করা হচ্ছে। জানা গেছে, গত মাসের শেষ সপ্তাহে জাপানি নাগরিক হোশি কোনিও, মাজারের খাদেম রহমত আলী হত্যা এবং বাহাই নেতা রুহুল আমিনকে হত্যাচেষ্টা মামলায় জেএমবির ১৬ সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ১৬ জেএমবিকে তিন মামলায় আসামি দেখানো হয়। এর মধ্যে কোনিও হত্যা মামলায় ৮, খাদেম হত্যা মামলায় ১৪ এবং বাহাই নেতা হত্যাচেষ্টা মামলায় ৬ জেএমবিকে অভিযুক্ত করা হলেও তিন ঘটনায় জড়িত ছিল ১৬ জন। এর মধ্যে নয়জন পলাতক রয়েছেন। পলাতকরা হলেন জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে রাজীব ওরফে আন্ধি, সাখাওয়াত হোসেন, বাবুল আখতার ওরফে বাবুল মাস্টার, রাজীবুল ইসলাম মোল্লা ওরফে বাদল ওরফে বাঁধন, সাদ্দাম হোসেন ওরফে রাহুল, নজরুল ইসলাম ওরফে বাইক নজরুল ওরফে হাসান, চান্দু মিয়া, আহসান উল্লাহ আনসারী, মোসাব্বিরুল আলম খন্দকার ওরফে রিপন ওরফে প্রিন্স। কারাগারে আছেন মাসুদ রানা, ইছাহাক আলী, লিটন মিয়া, আবু সাঈদ, সরোয়ার হোসেন সাবু ওরফে মিজান, সাদাত ওরফে রতন মিয়া ও তৌফিকুল ইসলাম সবুজ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow