Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৯
বসুন্ধরা পেপার পুরস্কার পেলেন দুই ভাগ্যবান
নিজস্ব প্রতিবেদক
বসুন্ধরা পেপার পুরস্কার পেলেন দুই ভাগ্যবান
রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে গতকাল বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপ পরিচালক ইয়াশা সোবহান —বাংলাদেশ প্রতিদিন

দেশের শীর্ষ কাগজ ও টিস্যু জাতীয় পণ্য প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটেডের তৈরি ‘বসুন্ধরা এ-ফোর পেপার’-এর মোবাইল রিচার্জ অফারের প্রথম পর্বের সারপ্রাইজ পুরস্কার পেলেন দুই ভাগ্যবান বিজয়ী। তাদের হাতে পুরস্কার হিসেবে স্মার্টফোন তুলে দিলেন দেশের শীর্ষ শিল্প-উদ্যোক্তা পরিবার বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক ইয়াশা সোবহান।

পুরস্কার বিজয়ীরা হলেন— খুলনার মৎস্য প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জাহিদ হাসান ও নারায়ণগঞ্জের তৈরি পোশাকশিল্প কারখানার কর্মকর্তা নেপাল চন্দ্র রায়। গতকাল রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেড কোয়ার্টার্স-২ এ আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করেন বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক ইয়াশা সোবহান। এতে বক্তব্য দেন বসুন্ধরা গ্রুপের জ্যেষ্ঠ উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান, বসুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটেডের হেড অব সেলস (টিস্যু, হাইজিন অ্যান্ড পেপার প্রোডাক্টস) মো. মাসুদ উজ জামান, পুরস্কার জয়ী জাহিদ হাসান, নেপাল চন্দ্র রায় প্রমুখ। বসুন্ধরা গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমাদের উৎপাদিত পণ্য দেশীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়েছে। উৎপাদন আরও বাড়ছে। তাই দেশীয় ভোক্তাদের আস্থা অর্জন করে এবার আমরা ‘বসুন্ধরা এ-ফোর পেপার’ শিগগিরই বিদেশেও রপ্তানি শুরু করতে যাচ্ছি। পুরস্কার বিজয়ী খুলনার মৎস্য প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জাহিদ হাসান বলেন, বসুন্ধরার পণ্যের মান অনেক ভালো। প্রতিষ্ঠানটি আরও অনেক এগিয়ে যাবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন। নারায়ণগঞ্জের তৈরি পোশাকশিল্প কারখানার কর্মকর্তা নেপাল চন্দ্র রায় বলেন, আমি এই পুরস্কার পেয়ে গর্বিত। তিনি বলেন, বসুন্ধরার পণ্য আমাদের ব্যবহারের ক্ষেত্রে দেশপ্রেমে উৎসাহ জোগায়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই পাতার আরো খবর
up-arrow