Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:২৯
চামড়ার দাম নির্ধারণে মন্ত্রীর আলটিমেটাম
নিজস্ব প্রতিবেদক
চামড়ার দাম নির্ধারণে মন্ত্রীর আলটিমেটাম

কোরবানির পশুর চামড়া গত বছরের চেয়ে প্রায় অর্ধেক দামে কেনার যে প্রস্তাব দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা তা প্রত্যাখ্যান করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়ে বলেছেন, এই সময়ের মধ্যে চামড়ার যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণ করে বাণিজ্য সচিবের অনুমোদন নিয়ে তা প্রচার করতে হবে। চামড়া ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে গতকাল এক বৈঠকে তিনি এই সময়সীমা বেঁধে দেন। গত বছর কোরবানির পশুর চামড়ার মূল্য ছিল প্রতি বর্গফুট ৫০ থেকে ৫৫ টাকা। এ বছর ব্যবসায়ীরা এর চেয়ে ৪০ শতাংশ কমিয়ে মূল্য নির্ধারণের প্রস্তাব দেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা গত বছরের তুলনায় দাম কমিয়ে চলতি বছর চামড়া কেনার যে প্রস্তাব দিয়েছেন, তা অগ্রহণযোগ্য।

এটি কোনোভাবেই মানা যাবে না। যদি অযৌক্তিক দাম নির্ধারণ করা হয়, তবে পাশের দেশে চামড়া পাচার হয়ে যাবে। তা কোনোভাবে ঠেকানো যাবে না। তাই চামড়া নিয়ে কোনো ধরনের সিন্ডিকেট হবে না। সিন্ডিকেট করতে দেওয়া হবে না।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভারত বাংলাদেশে গরু রপ্তানি না করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা ইতিবাচক ফল বয়ে এনেছে। দেশে গরু উৎপাদন উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছর বিক্রয়যোগ্য গরুর সংখ্যা ছিল ৯৬ লাখ ৩৫ হাজার। এ বছর তা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১ কোটি ৪ লাখ। চাহিদা পূরণের জন্য পর্যাপ্ত পশু দেশে মজুদ রয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কোরবানির পশু সংকটের কোনো আশঙ্কা নেই।

তোফায়েল আহমেদ জানান, কোরবানির পশুর চামড়া সংরক্ষণে ইতিমধ্যে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ঈদে যাতে সংকট তৈরি না হয় সে জন্য দেড় লাখ টন লবণ আমদানির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামীকালের মধ্যেই এ লবণ আমদানির জন্য এলসি খোলা শুরু হবে। পরশু লবণ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক আছে। এর মধ্যে ৭৫ হাজার টন শিল্পমালিকদের জন্য, আর বাকি ৭৫ হাজার টন ভোক্তাদের জন্য।

বৈঠকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএ) সভাপতি শাহিন আহমেদ, চামড়া ব্যবসায়ী মহিউদ্দিন আহমেদ মাহিন প্রমুখ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow