Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩০
বসুন্ধরায় ‘বাবা রাফি’
নিজস্ব প্রতিবেদক

বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বসুন্ধরা ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে সুস্বাদু কাবাবসহ কয়েক ধরনের ফাস্টফুড ও কোমল পানীয়ের পসরা সাজিয়ে বসেছে ‘বাবা রাফি’। ইন্দোনেশিয়াভিত্তিক বিশ্বের সর্ববৃহৎ এই কাবাব চেইনের ঢাকায় এটাই প্রথম আউটলেট।

দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী গোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা অ্যামুজমেন্ট পার্কের সহযোগিতায় ইন্দোনেশিয়ার বিখ্যাত এই কাবাব চেইনটির ঢাকায় এ রকম আরও নয়টি আউটলেট খোলা হবে বলে জানা গেছে। গতকাল দুপুরে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের সামনে স্থাপিত ‘বাবা রাফির কনটেইনার কাবাব’ নামের এ আউটলেটের উদ্বোধন করেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সহকারী মো. ফয়েজুর রহমান, নিউ বিজনেসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার হানিফ হাকিম, বাবা-রাফির প্রকল্প সমন্বয়কারী সাকিরুজ্জামান প্রমুখ।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাবা রাফি সম্পর্কে আগ্রহ ছিল অনেক বেশি। তাই তারা মধ্যাহ্নভোজের বিরতির সময় দল বেঁধে চলে আসেন বাবা রাফিতে। আর এ কারণে প্রথম দিনই ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয়েছে বাবা রাফির বিক্রয় কর্মীদের। এ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে খাবারের অর্ডার দিয়েছেন ক্রেতারা।

উদ্বোধনের পর থেকেই ‘প্রোমোশনাল অফার’ চলছে বাবা রাফিতে। মাত্র ৯৯ টাকায় চিকেন কাবাব, বিফ কাবাব, চিকেন বার্গার, বিফ বার্গার বিক্রি করছে প্রতিষ্ঠানটি। সঙ্গে আরও রয়েছে চিকেন রাইস ও সাব-স্যান্ডুইচ, কোল্ড ড্রিঙ্ক ও কফির ব্যবস্থা।

উদ্বোধনকালে ইমদাদুল হক মিলন বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সব সময় দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করছে। এরই অংশ হিসেবে আজ ইন্দোনেশিয়ার বিখ্যাত কাবাব চেইন শপ ‘বাবা-রাফি’ বাংলাদেশে নিয়ে এলো।

প্রকল্প সমন্বয়কারী সাকিরুজ্জামান জানান, বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তাদের ১ হাজার ২০০ আউটলেট রয়েছে। সম্পূর্ণ হালাল এই কাবাবের আউটলেটগুলো ২৪ ঘণ্টাই খোলা থাকবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow