Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৪১
শেষ হলো রংপুর জিলা স্কুলের মিলনমেলা
নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

নবীন ও প্রবীণ শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে রংপুর জিলা স্কুল প্রাঙ্গণ। স্কুলের ১৮৪ বছরপূর্তি উপলক্ষে বুধবার শুরু হওয়া দুই দিনের পুনর্মিলনীর অনুষ্ঠান গতকাল শেষ হয়েছে। পুনর্মিলনী উৎসবের স্লোগান ‘যেথায় থাকি, যে যেখানে বাঁধন আছে প্রাণে প্রাণে’। দুই দিন স্কুল প্রাঙ্গণে নানা বয়সী, নানা মানুষের উচ্ছলতা, শুভেচ্ছা বিনিময়, স্মৃতি রোমন্থন বুঝিয়ে দিয়েছে স্পষ্ট-বাঁধন আলগা হয়নি মোটেও, আছে একেবারে প্রাণে- প্রাণে। পুরনো বন্ধুদের কাছে পেয়ে কুশল বিনিময়ে ব্যস্ত হয়ে ওঠেন একেক জন। ফিরে যান পুরনো সেই দিনে। বুধবার দুপুরে সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বেলুন উড়িয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন। সম্মিলিত পুনর্মিলনী উদ্যাপন পর্ষদের আহ্বায়ক ডা. জাবেদ আখতারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন রংপুর সিটি মেয়র সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু, রাশেদ মাহবুব রব্বান, স্বাত্বিক শাহ আল মারুফ, লেখক ও সাংবাদিক আনিসুল হক। অনুষ্ঠানে স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থী রংপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ও ভাষাসৈনিক মোহাম্মদ আফজাল, ভাষাসৈনিক সুফী মোতাহার হোসেন, মীর আনিসুল হক পেয়ারা ও আবদুল গণি সরকাররকে সম্মাননা দেওয়া হয়। এছাড়া ২০ জন মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা দেওয়া হয়। এরা হলেন, সাবেক সেনা প্রধান মেজর জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান (মরণোত্তর), সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টু, মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, সদরুল আলম দুলু, আবদুল আউয়াল তালুদকার, রুহুল আজিজ, মোজাফফর হোসেন চাঁদ, রেজাউল করিম জুন্নুর, আবদুল রশিদ আলমগীর, ফজলে রাব্বি বাবু, আবুল কালাম আজাদ, আবুল মাসুদ চৌধুরী নান্টু, আমিনুল হক ও মাসুদার রহমান স্বপন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow