Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১০
ন্যাশনালসহ ৪ হাসপাতালকে ২২ লাখ টাকা জরিমানা
অভিযোগ অনিয়ম জালিয়াতির
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে পুরান ঢাকার ন্যাশনাল মেডিকেল ইনস্টিটিউট হাসপাতালসহ চার চিকিৎসা সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের ১২ জনকে ২২ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে— মেডিনোভা মেডিকেল সার্ভিসেস, পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার। গতকাল র‌্যাব-২ এর উদ্যোগে স্বাস্থ্য অধিদফতর ও ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সরওয়ার আলম।

জানা গেছে, মেডিনোভা মেডিকেল সার্ভিসেসের ম্যানেজার নাসির ওয়াকার, ল্যাব ইনচার্জ উজ্জ্বল মিয়া, ম্যানেজার (প্রশাসন) সাইফুল ইসলাম ও কেয়ারটেকার আবু ইয়াহিয়াকে ৮ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে প্রত্যেককে ৩ মাসের কারাদণ্ড; পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার শিবলী সাদি আকন্দ, আবুল কালাম আজাদ ও রবিকুল ইসলামকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে প্রত্যেককে ৩ মাসের কারাদণ্ড; মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার খোকন চৌধুরী, ল্যাব ইনচার্জ মাহফুজ ভুইয়া ও টেকনোলজিস্ট মিলন চৌধুরীকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে প্রত্যেককে ৩ মাসের কারাদণ্ড এবং ঢাকা ন্যাশনাল মেডিকেল ইনস্টিটিউট হাসপাতালের ল্যাব ইনচার্জ সুলতান এম আতিকুর রহমান ও টেকনোলজিস্ট জিয়াউর রহমানকে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ৪ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে প্রত্যেককে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

র‌্যাব-২ এর অপস অফিসার এএসপি ফিরোজ কাওসার জানান, হাসপাতালগুলোতে মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট ব্যবহার, রোগ নির্ণয়ের রিপোর্ট কার্ড হিসেবে ব্যবহৃত বইয়ে ব্ল্যাংক স্বাক্ষর, বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের নামে ভুয়া সিল, অত্যন্ত নোংরা পরিবেশ এবং অনুমোদনহীন ব্লাডব্যাংক  পরিচালনা করা হচ্ছিল।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow