Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৫৫
স্টেশন মাস্টার ও কন্ট্রোলার বরখাস্ত
চট্টগ্রামে পৃথক দুই ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন
সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম
স্টেশন মাস্টার ও কন্ট্রোলার বরখাস্ত

চট্টগ্রামে দুই ট্রেন দুর্ঘটনার পৃথক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন উচ্চপর্যায়ের তদন্ত কমিটি। উভয় ঘটনায় দায়িত্বশীল রেল কর্তাদেরই দায়ী করা হয়েছে। ফৌজদারহাটের ঘটনার দায়িত্বে অবহেলা ও গাফিলতির কারণে ফৌজদারহাট স্টেশন মাস্টার সঞ্জীব দাশ ও ট্রেন কন্ট্রোলার শহিদুল আনোয়ারকে দায়ী করা হয়েছে এবং তাদের গতকাল সাময়িকভাবে বরখাস্তও করা হয়েছে। একই দিন পাহাড়তলীর দুর্ঘটনায় ক্রসওভার এবং সংযুক্ত আপডাউন ট্র্যাকগুলোর যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ না করার কারণে ‘স্প্রেড অব গেজ’ হয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় এসএসএই (ওয়ে) চট্টগ্রাম কামাল উদ্দিন চৌধুরীকে দায়ী করা হয়েছে। তবে পাহাড়তলী দুর্ঘটনার বিষয়ে কমিটির সদস্যদের মধ্যে প্রকৌশল বিভাগের কর্মকর্তারা নিজেদের বিভাগকে ‘দোষমুক্ত সাফাই গেয়ে’ ভিন্নমত পোষণ করে প্রতিবেদন জমা দেন বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। এ ব্যাপারে মুখ খুলছেন না তদন্ত কমিটির সদস্যরা। গতকাল বিকালে ওই পৃথক দুটি তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেয়েছেন বলে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে নিশ্চিত করেছেন রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) প্রকৌশলী আবদুল হাই।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ফৌজদারহাট ও পাহাড়তলীতে পৃথক ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। উচ্চপর্যায়ের এ তদন্ত কমিটির দায়িত্বে ছিলেন পূর্বাঞ্চলের প্রধান পরিবহন কর্মকর্তা (সিওপিএস) মিয়া জাহান। তদন্ত কমিটির সদস্য ও পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী (সিই) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, তদন্ত প্রতিবেদনটি যাচাই-বাছাই করে জমা দেওয়া হয়েছে। এতে প্রকৃত ঘটনা যাতে উঠে আসে সেভাবেই গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। পাহাড়তলী দুর্ঘটনা তদন্ত কমিটির সুুপারিশে উল্লেখ করা হয়, ভবিষ্যৎ অনুরূপ দুর্ঘটনা রোধকল্পে রেলওয়ে ট্র্যাক বিশেষ করে স্টেশন ইয়ার্ড, স্টেশন লিমিটেডের মধ্যে আপ ও ডাউন লাইন সংযোগকারী সব ক্রসওভার লাইন সুষ্ঠুভাবে ওয়ে অ্যান্ড ওয়ার্কস ম্যানুয়েল এবং সংশ্লিষ্ট নির্দেশনা মোতাবেক রক্ষণাবেক্ষণ করা জরুরি, লাইন পরিদর্শন করে যাবতীয় অকার্যকর ফিটিংস, জয়েন্ট, স্লিপার, ব্যালাট প্রভৃতি প্রতিস্থাপন-সংযোজন প্রয়োজন, ট্র্যাকসহ ক্রসওভার লাইনের নিয়মিত ওভারহোলিংসহ অন্যান্য রক্ষণাবেক্ষণ কাজ নির্বাহ করা জরুরি, বিভিন্ন পর্যায়ের পরিদর্শক-কর্মকর্তারা কর্তৃক নিয়মিত ট্র্যাক পরিদর্শন, কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা এবং একই সঙ্গে ফৌজদারহাট দুর্ঘটনার তদন্ত বিষয়ে স্টেশনে আরও দক্ষ ও অভিজ্ঞতাসম্পন্ন রেলওয়ে কর্মকর্তাকে দায়িত্ব পালনের জন্য দেওয়া, স্টেশনটি আরও কার্যকর করতে সব দায়িত্বশীলদের দৃষ্টি দেওয়া, জংশন স্টেশনের মতো এখানেও কঠোর নজরদারি রাখাসহ আরও বেশ কিছু সুপারিশ করা হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow