Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১৩
হাইকোর্টে ওসি ও ইউএনওর নির্যাতনের বর্ণনা স্কুলছাত্রের
নিজস্ব প্রতিবেদক

আদালতের নির্দেশে হাইকোর্টে হাজিরা দিলেন টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম এবং সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম। আর আদালতে গিয়ে পুলিশ ও ইউএনওর নির্যাতনের বিবরণ দিল নবম শ্রেণির ছাত্র সাব্বির সিকদার।

টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনের সংসদ সদস্য অনুপম শাজাহান জয়কে ফেসবুকে হুমকির অভিযোগে স্কুলছাত্রকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুই বছরের কারাদণ্ড প্রদানের ঘটনায় ইউএনও ও ওসি হাইকোর্টের নির্দেশে হাজিরা দেন। শুনানি শেষে এ বিষয়ে ১৮ অক্টোবর আদেশের দিন ধার্য করা হয়েছে। গতকাল বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আশীষ রঞ্জন দাসের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হয়। আদালতে উপস্থিত ছিলেন সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। শুনানিতে ইউএনও ও ওসির আইনজীবী শ ম রেজাউল করিম ও নুরুল ইসলাম সুজন আদালতে জানান, ফেসবুকে এসপিকে হুমকির অভিযোগে নয় বরং গাঁজাসহ আটকের পর ওই ছাত্রকে সাজা দেওয়া হয়েছে। সংবাদপত্রে বিষয়টি সঠিকভাবে আসেনি। তা ছাড়া পাসপোর্ট অনুযায়ী ওই ছাত্রের জন্ম ১৯৯৫ সালে। সুতরাং সে কিশোর নয়। তবে আদালতের নির্দেশে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওই ছাত্র জানায়, ১৬ সেপ্টেম্বর রাত ৯টায় তাকে বাড়ি থেকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow