Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০২:৫৬
সুন্দরবনবিনাশী প্রকল্প বাতিল করতে হবে
—আনু মুহাম্মদ
নিজস্ব প্রতিবেদক

তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেছেন, দমনপীড়ন বন্ধ করে সুন্দরবনবিনাশী রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ সব প্রকল্প অবিলম্বে বাতিল করতে হবে। তিনি বলেন, যুক্তিতে পরাজিত হয়ে সরকার শক্তি প্রয়োগ ও দমনপীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। দমনপীড়ন করে সুন্দরবনবিনাশী রামপাল প্রকল্পবিরোধী আন্দোলন থেকে সচেতন দেশপ্রেমিক জনগণকে পিছু হটানো যাবে না। ৩০ সেপ্টেম্বর তরুণদের উদ্যোগে সুন্দরবন বাঁচাও স্লোগানে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সাইকেল র‌্যালিতে বাধার প্রতিবাদে গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। জাতীয় কমিটির ঢাকা মহানগরের সমন্বয়ক জাহাঙ্গীর আলম ফজলুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া, সাইকেল র‌্যালির সংগঠক সামান্তা শারমিন, ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতা হাসিব মো. আশিক, তৈমুর আলম খান অপু, জুলফিকার আলী, খান আসাদুজ্জামান মাসুম, আবু বক্কর রিপন প্রমুখ। মীর মোফাজ্জল হোসেন মোস্তাক, শহীদুল ইসলাম সবুজ, সীমা দত্ত ও মো. হানিফ। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল প্রেসক্লাব থেকে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুরানা পল্টন মোড়ে এসে শেষ হয়। 

আনু মুহাম্মদ বলেন, বিভিন্ন রকম মিথ্যা বিজ্ঞাপন দিয়ে সুন্দরবনবিনাশী প্রকল্পের পক্ষে জনমত গঠন করা সম্ভব হবে না। যত বাধা প্রদান করা হচ্ছে ততই আন্দোলনের পক্ষে গান, কবিতা, ছবি ও সাইকেল র‌্যালিসহ নিত্যনতুন আন্দোলনের পথ আবিষ্কৃত হচ্ছে। সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলনে বরিশাল, রংপুর, বগুড়া ও খুলনাসহ বিভিন্ন জেলায় হামলা-ভয়ভীতি দেখানোর তীব্র নিন্দা জানান তিনি। এক মাস হয়ে গেলেও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রনেতা দিলীপ রায়কে এখনো ৫৭ ধারায় আটক রাখা হয়েছে যা আইনসঙ্গত নয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow