Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৬
মূল্যস্ফীতি বেড়েছে ঈদের মাসে
নিজস্ব প্রতিবেদক

সেপ্টেম্বর শেষে অর্থনীতিতে মূল্যস্ফীতির চাপ কিছুটা বেড়েছে। বিশেষ করে খাদ্য খাতে মূল্যস্ফীতি আগস্টের তুলনায় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ দশমিক ১০ শতাংশে যা আগস্টে ছিল ৪ দশমিক ৩০ শতাংশ।

গত মাসে কোরবানির ঈদ হওয়ায় মানুষ খাদ্য বাবদ বেশি কেনাকাটা করায় মূল্যস্ফীতির এ চাপ বেড়েছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। গতকাল একনেক বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। পাশাপাশি সেপ্টেম্বরে সাধারণ মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৩৭ শতাংশ থেকে বেড়ে ৫ দশমিক ৫৩ শতাংশ হয়েছে। কোরবানির ঈদকে ঘিরে মানুষের নিত্যপণ্যের চাহিদা বাড়ে। চাল, শাক-সবজি, লবণ, মসলা, চিনি, তেলসহ কিছু পণ্যের দাম আগের মাসের তুলনায় কিছুটা বাড়ায় সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতি হার বেড়েছে। এ ছাড়া কোরবানির পশু কিনতে যে ব্যয় হয়েছে সেটাও এতে যোগ হয়েছে। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্য অনুযায়ী, সেপ্টেম্বর মাসে সার্বিক মূল্যস্ফীতি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ দশমিক ৫৩ শতাংশে, এর আগের মাসে যা ছিল ৫ দশমিক ৩৭ শতাংশে? আগস্টে খাদ্যে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক ১০ শতাংশ, যা আগস্টে ছিল ৪ দশমিক ৩০ শতাংশ। এ ছাড়া খাদ্য বহির্ভূতপণ্যে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৬ দশমিক ১৯ শতাংশ, যা আগের মাসে ছিল ৭ শতাংশ। এদিকে শহর অঞ্চলে সেপ্টেম্বরে সার্বিক মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৭ দশমিক ২১ শতাংশ, যা আগের মাসে ছিল ৭ দশমিক ১৫ শতাংশ। আর গ্রামাঞ্চলে সার্বিক মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ, যা তার আগের মাসে ছিল ৪ দশমিক ৪১ শতাংশ। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান ও পরিকল্পনা সচিব তারিক-উল ইসলাম।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow