Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৬
ঢাকার কূটনৈতিক এলাকা এখন শতভাগ নিরাপদ
ডিএনসিসির মতবিনিময় সভা
নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক বলেছেন, রাজধানী ঢাকার কূটনৈতিক এলাকা এখন শতভাগ নিরাপদ। কূটনীতিক ও বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য সরকারের পাশাপাশি সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। গতকাল রাজধানীর গুলশানে উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উদ্যোগে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। মহানগরীতে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকদের জীবনযাত্রা এবং দেশের ব্যবসা খাতে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে ডিএনসিসির উদ্যোগে গুলশান সেন্টার পয়েন্টে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনার, বিদেশি ক্রেতা সংস্থার প্রতিনিধি, শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতা, গুলশান, বারিধারা, বনানী ও নিকেতন সোসাইটির প্রতিনিধি এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় মেয়র আনিসুল হক তার কর্মকালের এক বছরে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় সূচিত নানা ধরনের সামাজিক উন্নয়ন এবং সাম্প্রতিক সময়ে নিরাপত্তা বিধানে সিটি কর্পোরেশনের গৃহীত নানা বিষয় তুলে ধরেন। তিনি ডিপ্লোম্যাটিক জোনে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, সার্কুলার বাস সার্ভিস ‘ঢাকা চাকা’ চালু করা, নির্দিষ্ট রিকশা সার্ভিস চালু করা এবং ‘নগর’ অ্যাপ সম্পর্কে উপস্থিত রাষ্ট্রদূত এবং বিদেশি ক্রেতাদের অবহিত করেন। 

আলোচনায় অংশ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সুইডেন ও ইতালির রাষ্ট্রদূতেরা সবাই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় এবং বিদেশিদের নিরাপত্তা প্রদানের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রশংসা করেন। তারা সিটি করপোরেশনের নানা উদ্যোগের প্রশংসা করে বলেন, এখনো আস্থার পরিবেশ পুরোপুরি ফিরে আসেনি, এ জন্য সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি আরও কিছুটা সময় প্রয়োজন। তবে তারা এখন চলাফেরার ক্ষেত্রে আগের চেয়ে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে উদ্দেশ করে তারা বলেন, আমরা যেন শিথিলতা প্রদর্শন না করি। বিদেশি ক্রেতা সংস্থার প্রতিনিধিরা দাবি জানান, ডিপ্লোম্যাটিক জোন বারিধারা ও গুলশানে নিরাপত্তা প্রদানের সঙ্গে সঙ্গে অন্য যেসব স্থানে বিদেশি ক্রেতাদের প্রায়শ যেতে হয়, সেসব স্থানেও নিরাপত্তা দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ, সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ টি এম শামসুল হুদা, সাবেক উপদেষ্টা সৈয়দ মনজুর এলাহি, এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি মীর নাসির হোসেন ও স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের চেয়ারম্যান কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ বক্তব্য রাখেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow