Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০৩:০৬
জঙ্গি মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ
সাত বিভাগীয় শহরে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল
নিজস্ব প্রতিবেদক

আইন বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, সারা দেশে ১৬৯টি জঙ্গি সংশ্লিষ্ট মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জঙ্গিদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার বিচার ত্বরান্বিত করতে সাতটি বিভাগীয় শহরে সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে। সংসদের দ্বাদশ অধিবেশনের সমাপনী দিবসে গতকাল প্রশ্নোত্তর পর্বে পৃথক দুটি লিখিত প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী এ তথ্য জানান। এর আগে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকে প্রশ্ন দুটি টেবিলে উপস্থাপিত হয়।

এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সংসদে জঙ্গি সংশ্লিষ্ট মামলার একটি তালিকা তুলে ধরেন। তাতে দেখা যায়, সারা দেশে মোট ১৬৯টি জঙ্গি মামলার মধ্যে ঢাকা বিভাগে (ময়মনসিংহসহ) ৬০টি, চট্টগ্রামে ৩৬টি, রাজশাহীতে ২৭টি, খুলনা বিভাগে ১২টি, বরিশাল বিভাগে ৭টি, সিলেট বিভাগে ৮টি এবং রংপুর বিভাগে ১৯টি মামলা রয়েছে।

জঙ্গিবাদ নির্মূল করার লক্ষ্যে এবং অভিযুক্ত জঙ্গিদের দ্রুত বিচার নিশ্চিতকল্পে সরকার সদা সচেষ্ট ও যত্নবান রয়েছে বলেও তিনি জানান।

মহিলা এমপি আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার বিচার ত্বরান্বিত করতে সাত বিভাগীয় শহরে সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

৫৮৭ সহকারী জজ নিয়োগ : মো. নজরুল ইসলাম ফরাজীর (চট্টগ্রাম-১৪)-এর এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী জানান, বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের দুই মেয়াদে ন্যায় বিচার ও দ্রুত বিচারের লক্ষ্যে বিচারক নিয়োগ দিয়েছে। ৫৮৭ জন সহকারী জজ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ২০১০ সালে ২১১ জন সহকারী জজ, ২০১২ সালে ১১৯ জন সহকারী জজ, ২০১৩ সালে ১২৫ জন সহকারী জজ, ২০১৪ সালে ৮০ জন সহকারী জজ এবং ২০১৫ সালে ৫২ জন সহকারী জজ নিয়োগ দিয়েছে। মন্ত্রী আরও জানান, ইতিমধ্যে আরও ১০০ জন সহকারী জজকে মনোনীত করা হয়েছে।

আদালতের জন্য ই-জুডিসিয়ারি প্রকল্প : মহিলা এমপি বেগম জেবুন্নেছা আফরোজের এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী জানান, অধস্তন আদালতের কাজকর্মের গতিশীলতা বৃদ্ধির জন্য সরকার ই-জুডিসিয়ারি নামক একটি প্রকল্প গ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছে। এ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে দেশের আদালতসমূহ ডিজিটালাইজড হবে এবং আধুনিক কম্পিউটারাইজড প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বিচার প্রক্রিয়া আরও সহজ, স্বচ্ছ এবং গতিশীল হবে।

৩৩ লাখ ৮৭ হাজার ৮২২টি মামলা নিষ্পত্তি : এম আবদুল লতিফের (চট্টগ্রাম-১১) এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী জানান, ১ জানুযারি ২০১৪ থেকে ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত উচ্চ আদালতসহ সকল প্রকার নিম্ন আদালত/ট্রাইব্যুনালে সর্বমোট নিষ্পত্তিকৃত মামলার সংখ্যা ৩৩ লাখ ৮৭ হাজার ৮২২টি। এর মধ্যে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে ১ জানুয়ারি ২০১৪ হতে ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত নিষ্পত্তিকৃত মামলার সংখ্যা ২১ হাজার ৪২৮টি। হাইকোর্ট বিভাগে নিষ্পত্তিকৃত মামলার সংখ্যা ৮৩ হাজার ৮৮টি। সব জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ সকল প্রকার ট্রাইবু্যুনালে নিষ্পত্তিকৃত মামলার সংখ্যা ১৩ লাখ ৪৬ হাজার ৪৯৫টি, সব মেজিস্ট্রেট আদালতে নিষ্পত্তিকৃত মামলার সংখ্যা ১৯ লাখ ৩৬ হাজার ৮১১টি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow