Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৩
বিএনপি নেতারা ওয়ার্ড কমিটি গঠন নিয়ে ব্যস্ত
ফারুক তাহের, চট্টগ্রাম
বিএনপি নেতারা ওয়ার্ড কমিটি গঠন নিয়ে ব্যস্ত

সদস্য সংগ্রহ অভিযান ও ওয়ার্ড কমিটি গঠন নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির নেতারা। ২৫ সেপ্টেম্বর নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৩৯টির পুরনো কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে নগর বিএনপি।

সম্মেলন ও নির্বাচন পরিচালনার জন্য ঘোষণা করা হয় ৩৯ ওয়ার্ডের আহ্বায়ক কমিটিও। এখন ওয়ার্ডগুলোয় অস্থায়ী কার্যালয় চালুর কাজ চলছে বলে নগর বিএনপি সূত্রে জানা গেছে।

বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, দলের নির্ধারিত ফরম পূরণ করে ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সদস্য হওয়ার জন্য আগামী দুই মাস সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। সদস্য সংগ্রহের জন্য ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে অস্থায়ী কার্যালয় ভাড়া নেওয়ার কাজ চলছে। ইতিমধ্যে নগরীর বৃহত্তর বাকলিয়ার তিন ওয়ার্ডসহ ছয়টিতে কার্যালয় খোলা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সদস্য ফরম বিতরণ ও জমা নেওয়ার কাজ চলছে। এভাবে দুই মাস সদস্য সংগ্রহ শেষে আহ্বায়ক কমিটি প্রতিটি ওয়ার্ডে সম্মেলন ও নির্বাচনের আয়োজন করবে বলে জানা গেছে।

এদিকে সদস্য ফরম বিতরণ ও সংগ্রহের কাজ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সম্পন্ন করার জন্য ওয়ার্ডের কারও ব্যক্তিগত অফিস বা বাসায় কার্যালয় খোলা হচ্ছে না। নগর বিএনপি নেতাদের কঠোর নজরদারিতে প্রতিটি ওয়ার্ডে সদস্য সংগ্রহ থেকে সম্মেলন ও নির্বাচন আয়োজনের কাজ সম্পাদন হবে বলে জানা গেছে। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে ১১টি সাংগঠনিক পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে যদি কোনো পদে একাধিক প্রার্থী না থাকে, সেই পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেতা নির্বাচিত হবেন। নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন আগামী দুই মাসের এ কার্যক্রমকে নিজের ও দলের জন্য চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন উল্লেখ করে বলেন, ‘নগরীর ওয়ার্ডগুলোয় সদস্য সংগ্রহ থেকে নির্বাচন পর্যন্ত যে কর্মযজ্ঞ চলছে তা অত্যন্ত কঠিন। যেহেতু এ প্রক্রিয়ার ভিত ও কার্যক্রম এই চট্টগ্রাম থেকেই সূচনা করেছি, তাই আমরা একে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি।

নির্বাচনের মাধ্যমে ১০১ সদস্যের কমিটি গঠনই হবে আগামী দিনের আন্দোলন-সংগ্রামের মূল ভিত্তি। ’ নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, ‘আমাদের এখন সকাল-সন্ধ্যা একটাই কাজ— তা হচ্ছে ৩৯টি ওয়ার্ডের নতুন কমিটি গঠন। যেহেতু সিলেকশনের মাধ্যমে নেতা নির্বাচনের সুযোগ নেই, সেহেতু সদস্য সংগ্রহের মাধ্যমে তাদের ভোটেই ওয়ার্ড কমিটির নেতা নির্বাচন করা হবে; যা অত্যন্ত কষ্টসাধ্য ব্যাপার। ’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow