Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৫৪
ফেনীতে এবারও ভোটে নেই বিএনপি, জিতল আওয়ামী লীগ
ফেনী প্রতিনিধি

ফেনীর পরশুরাম উপজেলার সব ইউপিসহ ফুলগাজী উপজেলার দুটি ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা একক প্রার্থী হিসেবে জয়ের পথে রয়েছেন।

এ ছাড়া পরশুরামের তিনটি ও ফুলগাজীর ছয়টি ইউপির নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ১২ সংরক্ষিত (মহিলা) ও ২১ সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদের প্রার্থী একক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হতে চলেছেন।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের যেসব প্রার্থী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে চলেছেন তারা হলেন পরশুরামের মির্জানগর ইউনিয়নে মো. নুরুজ্জামান ওরফে ভুট্টু, চিথলিয়ায় জসিম উদ্দিন ও বক্সমাহমুদে জাকির হোসেন চৌধুরী। এদিকে ফুলগাজী উপজেলার দুটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত একক চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন আনন্দপুরে হারুন মজুমদার ও দরবারপুরে নিজাম উদ্দিন মজুমদার। গতকাল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন এসব প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের আর নির্বাচন করার প্রয়োজন নেই। পরশুরাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাহেদা আক্তার জানান, পরশুরাম উপজেলার তিন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী গতকাল ছিল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত (মহিলা) ও সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদের অনেক প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ফলে তিন ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মাত্র একজন করে প্রার্থী রয়েছেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত সদস্য পদে তিন ইউনিয়নে নয়জনের মধ্যে আটজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এবং তিন ইউনিয়নে ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ড সদস্যপদে ১৪ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন। ফলে উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের সাতটি সাধারণ ওয়ার্ডে, চিথলিয়া ইউনিয়নের তিনটি সাধারণ ওয়ার্ডে ও বক্সমাহমুদ ইউনিয়নের তিনটি সংরক্ষিত (মহিলা) ওয়ার্ডের মধ্যে একটি এবং তিনটি সাধারণ ওয়ার্ডে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া ছয় ইউপির সংরক্ষিত ১৮টি মহিলা সদস্যের মধ্যে চারজন ও ৫৪ জন সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদের মধ্যে ছয়টি ওয়ার্ডে একক প্রার্থী থাকায় তারাও নির্বাচিত ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছেন। বর্তমানে ছয়টি ইউনিয়নের মধ্যে চারটিতে চেয়ারম্যান পদে ১৩ জন, ছয়টি ইউনিয়নে সংরক্ষিত ১৮টির মধ্যে ১৪টি ওয়ার্ডে এবং ৫৪টি সাধারণ ওয়ার্ডের মধ্যে ৪৮টি ওয়ার্ডে ১৬১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

up-arrow