Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩১
অছাত্র ও ব্যবসায়ীরা ছাত্রদলের নেতৃত্বে!
চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ও চবির কমিটি
মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ঘোষিত হয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কমিটি। এতে অছাত্র, পশু চিকিৎসক, ব্যবসায়ী ও বিবাহিতদের দেওয়া হয়েছে গুরুত্বপূর্ণ পদ। এমনকি মনিরুল আলম জনি ভুয়া সনদে উত্তর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে। অবশ্য তিনি এটিকে তার বিরুদ্ধে অপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে দাবি করেছেন। এছাড়া কমিটিতে সংগঠনের জন্য নিবেদিত ও ত্যাগী নেতাদের সিংহভাগ অবমূল্যায়িত হয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে। জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে ঘোষিত ছাত্রদলের চবি কমিটিতে ঠাঁই হয়েছে ৬৯ জনের। ২৩ জনের ঠাঁই হয়েছে চট্টগ্রাম উত্তর জেলায়। উত্তর জেলা কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে ‘এসএসসি পাস’ মনিরুল আলম জনিকে। হাটহাজারী কলেজের ছাত্র মুরাদুল ইসলাম নামে একজনের ডিগ্রি (পাস) সনদ জাল করে জনি সেটি কেন্দ্রে সরবারহ করে। ওই সনদে হাটহাজারী কলেজের অধ্যক্ষের স্বাক্ষরটিও জাল বলে অভিযোগ ওঠেছে তার বিরুদ্ধে। হাটহাজারীর সদরে তার একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্ট রয়েছে বলে জানা গেছে।  এছাড়া বিবাহিত ও পশু চিকিৎসক এবং অছাত্র আদুভাইদের অনেকেই স্থান পেয়েছেন উত্তর জেলা ছাত্রদলের কমিটিতে। চবি ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে ২০১২ সালে মাস্টার্স সম্পন্ন করা শহীদুল ইসলামকে। যার বতর্মানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রত্ব নেই। ছাত্র শিবিরের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত শহীদুল বর্তমানে কোচিং ব্যবসায় জড়িত।

up-arrow