Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৫
রাজনৈতিক সম্প্রীতির সেই ঐতিহ্য উধাও সিলেটে
শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট
রাজনৈতিক সম্প্রীতির সেই ঐতিহ্য উধাও সিলেটে

সিলেটের রাজনৈতিক সম্প্রীতির ইতিহাস ছিল গৌরবময়। অতীতে স্থানীয় যে কোনো সমস্যায় দলমত ভুলে সব দলের নেতা এক টেবিলে বসে দিয়েছেন সমাধান। গৌরবের সেই সম্প্রীতি এখন হয়ে পড়েছে দুর্বল। সম্প্রীতির রাজনীতির সুতো যেন কেটে গেছে কোথাও। বর্তমানে সমস্যার সমাধান দূরের কথা, নিজেদের মধ্যে কাদা ছোড়াছুড়ি ও হানাহানিতেই যেন গৌরবান্বিত হতে চান স্থানীয় নেতারা। রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাদের মধ্যে এমন দূরত্ব সৃষ্টিতে অনেক ছোটখাটো সমস্যাও আকার ধারণ করছে প্রকট।

অতীতে বিভিন্ন ইস্যুতে সারা দেশ অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠলেও সিলেট থাকত শান্ত। সব দলের শীর্ষ নেতার বোঝাপড়ায় চলত এখানকার রাজনীতি। রাজনৈতিক এ সম্প্রীতির কারণে সিলেটের মানুষও নিরাপদ ভাবতেন নিজেদের। ভারতে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের পর মন্দির ও হিন্দু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা কিংবা রবীন্দ্র স্মৃতিবিজড়িত সিংহবাড়ী রক্ষার আন্দোলনে মতাদর্শের ঊর্ধ্বে ছিল সিলেটের রাজনীতিবিদদের অবস্থান। ঐক্যবদ্ধ এসব আন্দোলনে সফলও হয়েছিলেন তারা। জাতীয় সংসদে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন নামে যে আইন হয়েছে তাও সিলেটের রাজনীতিবিদদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের ফসল। কিন্তু এক যুগ ধরে টান পড়েছে সিলেটের এই রাজনৈতিক সম্প্রীতির সুতোয়। এজন্য রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন ও অসৎ লোকের অনুপ্রবেশকেই দায়ী করছেন সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী রাজনীতিকরা।

এ ব্যাপারে সিলেট জেলা জাসদের সভাপতি লোকমান আহমদ বলেন, ‘সম্প্রীতির রাজনীতির উর্বর জনপদ সিলেট। সেই সম্প্রীতি নষ্ট হয়ে গেছে বলা যাবে না, তবে ধারাবাহিকতায় ছেদ ঘটেছে। এর কারণ হচ্ছে, রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন ও অসৎ লোকের অনুপ্রবেশ, রাজনীতিকে বাণিজ্যিকীকরণ, লুটেরাদের দাপট প্রভৃতি। সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামীম বলেন, ‘পুলিশ প্রশাসন, সিভিল প্রশাসনসহ সবকিছুতেই দলীয়করণ করে রাজনৈতিক কাঠামো ধ্বংস করা হচ্ছে।’এদিকে আওয়ামী লীগ নেতারা মনে করেন রাজনৈতিক সম্প্রীতির ঐতিহ্য নষ্টের জন্য কয়েক বছর ধরে চলা বিএনপির জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলনই দায়ী। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, ‘বিএনপির জ্বালাও-পোড়াও, আন্দোলনের নামে                    মানুষ পুড়িয়ে মারা এবং হরতাল-অবরোধের কারণে জনমনে তাদের নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রীতির রাজনীতিতেও এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow