Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:২২
আট বছরে বিদেশে গেছেন ৪২ লাখ বাংলাদেশি
তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট কাজ করছে
নিজস্ব প্রতিবেদক
আট বছরে বিদেশে গেছেন ৪২ লাখ বাংলাদেশি

বিগত আট বছরে ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৩৮৯ জন বাংলাদেশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গেছেন বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। জাতীয় সংসদে গতকাল টেবিলে উত্থাপিত মো. নুরুল ইসলামের (বগুড়া-৬) লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

বাংলাদেশ থেকে ২০১৬ সালে কর্মসংস্থানের জন্য ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৩১ জন পুরুষ ও ১ লাখ ১৮ হাজার ৮৮ জন নারী কর্মী বিদেশ গেছেন। এ সময় তিনি জানান, বিগত জোট সরকারের আমলে যেখানে বিশ্বের মাত্র ৯৭টি দেশে কর্মী পাঠানো হতো সেখানে নতুন করে আরও ৬৫টি দেশে কর্মী প্রেরণসহ বর্তমানে ১৬২টি দেশে কর্মী পাঠানো হচ্ছে। ইতিমধ্যে রাশিয়া ও থাইল্যান্ডে কর্মী প্রেরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

দশ সিট পেলেও নির্বাচনে যাবে বিএনপি : এমপি মান্নান সরকারদলীয় সংসদ সদস্য আবদুল মান্নান (বগুড়া-১) বলেছেন, বিএনপি যে কোনো পরিস্থিতিতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে অংশ না নেওয়া ভুল ছিল, এটা তারা মর্মে মর্মে বুঝতে পারছে।

তাই দশ সিট পেলেও তারা আগামীতে নির্বাচনে অংশ নেবে। তা না হলে দলটি বিলুপ্ত হবে। গতকাল রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের

আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন। নোবেল বিজয়ী ড. মুহম্মদ ইউনূসের সমালোচনা করে আবদুল মান্নান বলেন, পদ্মা সেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন বাতিলের জন্য তিনি হিলারি ক্লিনটনের কাছে গিয়েছিলেন। ইউনূস সেন্টার থেকে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। এটা ধৃষ্টতা ছাড়া কিছুই নয়। এদিকে জাতীয় সংসদে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, সরকার জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় প্রতিনিয়ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে। গতকাল এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, মোবাইল কোর্টে সাধারণত পাবলিক প্লেস ও পরিবহনে ধূমপান; তামাক কোম্পানিগুলোর বেআইনি প্রচারণা, প্রণোদনা ও বিজ্ঞাপন; ১৮ বছরের নিচে কারও কাছে বা কারও দ্বারা তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি প্রভৃতি আইন লঙ্ঘনে জরিমানা করা হয়। ক্ষেত্রবিশেষ কারাদণ্ডেরও বিধান রয়েছে। জিকা ভাইরাস ঝুঁকি : আরেক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে এশিয়ার সব কটি দেশই জিকা ভাইরাসের ঝুঁকিতে রয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। তথাপি রোগটি নিয়ন্ত্রণে সরকার নানাবিধ উদ্যোগে গ্রহণ করেছে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, দেশে বিগত এক বছরে চূড়ান্তভাবে নতুন ৫৭৮ জন এইডস রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow