Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৩৮
মশার উপদ্রবে নাকাল এলাকাবাসী
মোস্তফা কাজল
মশার উপদ্রবে নাকাল এলাকাবাসী

রাজধানীর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রধান সমস্যা মশার উপদ্রব। মশার কামড়ে অস্থির এলাকাবাসী।

এ ওয়ার্ডে বিনোদনের কোনো ব্যবস্থা নেই। এ অবস্থায় প্রতিদিন সন্ধ্যার পর মিরপুর এক নম্বর সেকশনের গোল চত্বরের সবুজ ঘাসে বসে চলে আড্ডা। আর ছুটির দিনগুলোতে এখানেই মানুষ কিছুটা স্বস্তি পেতে ছুটে আসেন।

সরেজমিন জানা গেছে, এক নম্বর সেকশনের গোল চত্বরের কিছু অংশ সন্ধ্যার পর হকারদের দখলে চলে যায়। ফলে নানা ধরনের বিড়ম্বনায় পড়েন এলাকাবাসী। কাঁচাবাজার, হকার স্ট্যান্ডের চাঁদাবাজি এবং ছিনতাইয়ের অন্যতম ক্ষেত্রভূমি এক নম্বর সেকশন। ছিনতাই চক্রের তিনটি সিন্ডিকেট এখানে সক্রিয়। এ ছাড়াও একাধিক সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্যও সম্প্রতি বেড়েছে। ফুটওভার ব্রিজের অভাব একটি প্রধান সমস্যা।

মিরপুর ১ নম্বর সেকশনের বাস টার্মিনাল নিয়ে এলাকাবাসীর ক্ষোভের শেষ নেই। রাস্তাজুড়ে বড় বড় বাস ও মিনিবাস দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। ফলে যানজট ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত লেগে থাকে। দৃষ্টি আর্কষণ করা হলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. ইকবাল হোসেন তিতু বলেন, নির্বাচিত হওয়ার পর এ পর্যন্ত দুই বছরে অনেক প্রকল্প নিয়ে কাজ করছি। সরকারি কিছু জমি স্থানীয় সংসদ সদস্য, এলাকার জনগণ ও পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় উদ্ধার করেছি। এলাকা থেকে মাদক ও সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণ করেছি। অবশিষ্ট কাজ শিগগিরি শেষ করতে পারব বলে আশাবাদী। তিনি বলেন, মশার ওষুধ বরাদ্দ পাওয়া গেছে। কয়েক দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় ওষুধ ছিটানো হবে। এছাড়া এলাকার জন্য একটি কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণের চেষ্টা চলছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow