Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:০১
সাত শতাংশ ভ্যাট ও স্মার্ট কার্ড চান ব্যবসায়ীরা
বিবেচনার আশ্বাস এনবিআরের
নিজস্ব প্রতিবেদক

নতুন মূল্য সংযোজন কর—মূসক বা ভ্যাট আইনে ১৫ শতাংশের পরিবর্তে ৭ শতাংশ নির্ধারণের প্রস্তাব দিয়েছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি—ডিসিসিআই। একই সঙ্গে সংগঠনটি ব্যবসায়ীদের উৎসাহিত করতে  ট্যাক্স কার্ডের মতো ভ্যাটেও স্মার্ট কার্ড প্রদানের দাবি জানিয়েছে।

গতকাল রাজধানীর সেগুন বাগিচার রাজস্ব ভবনে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড—এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এ প্রস্তাব দেন ডিসিসিআই সভাপতি আবুল কাশেম খান। তিনি ডিসিসিআইর নব-নির্বাচিত কমিটি নিয়ে সাক্ষাৎ করেন।

এ সময় এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান বলেন, আমরা এখন বাজেট বাস্তবায়নের মধ্যে আছি। আপনাদের প্রস্তাব আমরা তুলে ধরব। ডিসিসিআই সভাপতি আবুল কাসেম খান বলেন, ভ্যাট আদায়ে এনবিআর পদ্ধতি সহজীকরণ করতে হবে। বর্তমানে ৮ লাখ ৪০ হাজার বিনধারী (বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান এনবিআরের ডাটাবেজে নিবন্ধিত থাকলেও মাত্র ৩০ হাজার বিনধারী রিটার্ন প্রদান করে। করের আওতা বাড়ানোর দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমান করদাতাদের উপর অতিরিক্ত করের বোঝা না চাপিয়ে এবং একই করদাতাকে বিভিন্ন স্তরে ডাবল টেক্সেশনের চাপে না  ফেলে করের আওতা বাড়াতে হবে। বাংলাদেশে ট্যাক্স জিডিপি অনুপাত বর্তমানে ১০ দশমিক ৩ শতাংশ। অথচ ভিয়েতনামে ২৩ দশমিক ৫ শতাংশ,  নেপালে ১৯ দশমিক ৫ শতাংশ, থাইল্যান্ডে ১৬ শতাংশ, ফিলিপাইনে ১৩ দশমিক ৬ শতাংশ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow