Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৮

প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:০৬
ভুয়া ঠিকানা দিয়ে পাসপোর্ট তৈরির চেষ্টা রোহিঙ্গাদের
দালালচক্রের কারসাজি
রেজা মুজাম্মেল, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের ভুয়া ঠিকানা ব্যবহারের মাধ্যমে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করে তিনজন। কিন্তু কথা ও তথ্যে সন্দেহ-অসামঞ্জস্য দেখা দিলে তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে পাসপোর্ট অফিস কর্তৃপক্ষ তাদের আবেদন বাতিল করে ফাইল জব্দ করে। গত রবিবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। এভাবে রোহিঙ্গারা ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করছে। গত প্রায় এক মাসে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট কার্যালয়ে এ ধরনের প্রায় ৩০টি আবেদন বাতিল করা হয়েছে। এর মধ্যে মহিলাও আছেন। 

চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক শাহ মোহাম্মদ ওয়ালিউল্লাহ বলেন, প্রতিনিয়তই ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে রোহিঙ্গারা পাসপোর্টের জন্য আবেদন       করছে। সাম্প্রতিককালে দৈনিক গড়ে দুটি করে শনাক্ত        করা হচ্ছে। তবে দায়িত্বশীলদের সচেতনতার কারণে রোহিঙ্গাদের শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে।

তিনি বলেন, অফিসের চার দেয়ালের ভিতরে কোনো দালাল প্রবেশ করতে পারে না। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে আমরা সার্বক্ষণিক মনিটরিং করে থাকি। জানা যায়, সাধারণ ক্যাটাগরিতে পাসপোর্ট তৈরিতে ব্যাংকে জমা দিতে হয় তিন হাজার ৪৫০ টাকা। কিন্তু শনাক্ত হওয়া ওই তিনজনই ৬ হাজার টাকা করে দিয়েছে বলে দাবি করে। ওইদিন শনাক্ত হওয়া তিনজন বলেন, আমরা সৌদি আরব ও ওমান যাওয়ার জন্য পাসপোর্টের আবেদন করেছি। তিনজনই অশিক্ষিত হলেও পূরণকৃত ফরমের লেখাগুলো স্পষ্ট ও সুন্দর হাতের। অভিযোগ আছে, পাসপোর্ট অফিসের আশপাশে একটি দালালচক্র ঘুরঘুর করে।

এসব দালালের মাধ্যমে মিয়ানমারের অধিবাসী অনেকেই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করছে। প্রতিটি পাসপোর্ট তৈরির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কিন্তু এসব দালাল চক্র থাকে অফিসের বাইরে। তারা বাহির থেকে ফরম পূরণ করে আবেদনকারীকে সব শিখিয়ে দেয়। কেউ শনাক্ত হয়ে গেলে দালালরা লাপাত্তা হয়ে যায়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow