Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩৩
আন্দরকিল্লা সড়কে অবৈধ গাড়ি পার্কিং-কাঁচাবাজার
ফারুক তাহের, চট্টগ্রাম
আন্দরকিল্লা সড়কে অবৈধ গাড়ি পার্কিং-কাঁচাবাজার

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) ঐতিহ্যবাহী ৩২ নম্বর আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডে নানা নাগরিক সমস্যা রয়েই গেছে। নগরীর সর্ববৃহৎ পাইকারি ওষুধ ও বইয়ের বাজারও এখানে।

এক বর্গমাইলের বেশি আয়তনের এ ওয়ার্ডে জনসংখ্যা ৯৫ হাজার। ভোটার ১৭ হাজার ৫০০ জন। অন্যতম সমস্যা যানজট। সড়ক ও ফুটপাথজুড়েই যেন গাড়ি পার্কিং ও কাঁচাবাজারের হাট। আন্দরকিল্লা মসজিদের উত্তর ও পূর্ব পাশ পরিণত হয়েছে গাড়ি রাখার অলিখিত স্থানে। আর আন্দরকিল্লা মোড়টিই যেন যানজটের মোড়। তা ছাড়া ওয়ার্ডে রয়েছে সড়ক বাতির সংকট। প্রকাশ্যে মাদক সেবন, চুরি-ছিনতাই ও ইভ টিজিং নিত্য ঘটনা। আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডের জেলগেট, সিনেমা প্যালেসসহ আরও কয়েকটি এলাকায় প্রকাশ্যে চলে গাঁজা-মাদক সেবন। এতে সমস্যায় পড়তে হয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের। অন্যদিকে ওয়ার্ডে ফুটপাথ থেকেও নেই, রাস্তায় নেই পর্যাপ্ত স্ল্যাব, ঘটছে দুর্ঘটনা। ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে পুরো এলাকা। জেনারেল হাসপাতালের সামনে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকে ময়লার স্তূপ। সরকারিভাবে বসানো গভীর নলকূপ থেকে ঘণ্টা হিসেবে পানি কিনতে হয় এলাকাবাসীকে। এ ওয়ার্ড থেকে তিন মেয়াদে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী। এলাকার অন্তহীন সমস্যার ইস্যুকে সামনে রেখে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন তিনি। কিন্তু নির্বাচন পরবর্তী সেই ইস্যু নিয়ে ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কোনো তত্পরতা নেই বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow