Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩৪
অবশেষে মহিলা লীগের উৎকণ্ঠার সম্মেলন আজ
মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

দেড় যুগ পর আজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন। দীর্ঘদিন পর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও নেতা-কর্মীদের মাঝে নেই উৎসব, আমেজ, উদ্দীপনা।

উল্টো সম্মেলন কেন্দ্র করে দেখা দিয়েছে সংঘাতের শঙ্কা এবং নানা উৎকণ্ঠা। এ সম্মেলন ঘিরে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ও আ জ ম নাছির উদ্দিন শিবিরে বিভক্ত। এমন পরিস্থিতিতে সংঘাতের শঙ্কা নিয়ে আজ নগরীর দি কিং অব চিটাগাং এ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মহানগর মহিলা লীগের সম্মেলন। চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেত্রী ও সর্বশেষ কমিটির সহ-সভাপতি নমিতা আইচ বলেন, ‘সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি করা দরকার। দায়িত্ব নেওয়ার মতো ত্যাগী ও যোগ্য লোক আছে। নতুন কমিটিতে দুঃসময়ের লোক, যারা রাজপথে ছিলেন তাদের গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখা উচিত। ’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে মহিলা লীগের এক নেত্রী বলেন, ‘এ সম্মেলনকে মহানগর আওয়ামী লীগের দুই শীর্ষ নেতাই ইমেজ হিসেবেই নিয়েছেন। নেতাদের ইমেজ রক্ষা করতে দুই নেতার অনুসারীরাই সংঘাতে জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই এ সম্মেলনকে ঘিরে উৎসাহের চেয়ে শঙ্কাই বেশি কাজ করছে। ’ জানা যায়, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিল ১৯৯৮ সালে। ওই সম্মেলনে প্রয়াত নিলুফার কায়সার সভাপতি, নমিতা আইচকে সহসভাপতি, তপতী সেনগুপ্তকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করা হয়। ২০০৬ সালের দিকে নিলুফার কায়সার বার্ধক্যজনিত রোগে অসুস্থ হয়ে পড়লে মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী হাসিনা মহিউদ্দিনকে রাজনীতিতে সক্রিয় করে মহিলা লীগের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করানো হয়। কিন্তু জরুরি অবস্থার সময় নিজেকে গুটিয়ে নেন হাসিনা মহিউদ্দিন। পরবর্তীতে নিজেকে মহিলা লীগের স্বঘোষিত সভাপতি দাবি করে মহিলা লীগকে নিয়ন্ত্রণে আনতে হাসিনা মহিউদ্দিন তত্পর হয়ে ওঠেন। সেই থেকে মহিলা লীগের রাজনীতিতে শুরু হয় টানাপড়েন। সম্প্রতি সম্মেলনের উদ্যোগ নেওয়া হলে দুই পক্ষের মধ্যে অন্তঃকোন্দল চাঙ্গা হয়ে ওঠে। নেতা-কর্মীরা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মহিউদ্দিন চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনের শিবিরে বিভক্ত হয়ে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের পদের জন্য দৌড়ঝাঁপ শুরু করে। পদ বাগিয়ে নিতে কেন্দ্রে একে অপরের বিরুদ্ধে নালিশ করতে থাকেন। সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার জন্য তদবির করছেন হাসিনা মহিউদ্দিন, নমিতা আইচ। অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তপতী সেনগুপ্ত, রেখা আলম চৌধুরী, রেহানা কবির এবং মমতাজ খান। সর্বশেষ গত সপ্তাহে নমিতা আইচের নেতৃত্বে মহিলা লীগের একটি গ্রুপ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে দেখা করে হাসিনা মহিউদ্দিনের নামে অভিযোগ করে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow