Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৪৬
দেশে ৩৪ ভাগ কিশোরী যৌন নির্যাতনের শিকার
সংসদে তথ্য
নিজস্ব প্রতিবেদক

মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) পরিচালিত ভায়োলেন্স এগেইনস্ট উইমেন সার্ভে-২০১৫ এর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন, দেশের ১০ থেকে ১৪ বছর বয়সী কিশোরীর মধ্যে শতকরা ৩৪ দশমিক ২ শতাংশ যৌন নির্যাতনের শিকার। এ ছাড়া শতকরা ৩০ দশমিক ৯ ভাগ কিশোরী জীবনে কোনো না কোনো সময় শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে গতকাল সংসদের চতুর্দশ ও শীতকালীন অধিবেশনে টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তর পর্বে মমতাজ বেগমের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

২৮ হাজার বেকার মহিলাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে : মহিলা এমপি বেগম পিনু খানের এক প্রশ্নের জবাবে মেহের আফরোজ বলেন,  জেলাভিত্তিক মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রকল্পের মাধ্যমে, ৫ বছরে কমপক্ষে এসএসসি পাস ২৮ হাজার ৭০ জন শিক্ষিত বেকার নারীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এ জন্য ঢাকাসহ  দেশের ৬৪টি জেলা শহরে শিক্ষিত বেকার মহিলার জন্য ৬ মাস মেয়াদি কম্পিউটার অফিস অ্যাপ্লিকেশন কোর্স পরিচালিত হচ্ছে। প্রকল্পটির মেয়াদ ধরা হয়েছে ৫ বছর। রেলপথ মন্ত্রী মো. মুজিবুল হক বলেছেন, বাংলাদেশ রেলওয়েতে অনুমোদিত জনবল ৪০ হাজার ২৬৪ জনের বিপরীতে ১৩ হাজার ৬১১টি পদ শূন্য রয়েছে। তবে ২০১০ সাল থেকে এ পর্যন্ত রেলওয়ের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির ১৫ হাজার ৩৯৯টি শূন্যপদ পূরণের জন্য ছাড়পত্র পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৯ হাজার ৮৪৫টি পদে নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে। ২ হাজার ৫৯টি পদে নিয়োগ চলমান রয়েছে বলেও তিনি জানান। অপর প্রশ্নের জবাবে রেলপথ মন্ত্রী জানান, বর্তমানে রেলওয়ের অব্যবহৃত ভূমির পরিমাণ ১০ হাজার ৬৯৩ দশমিক ২৯ একর।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে রেল উন্নয়নের বিষয়ে ২০১২ সালের ১৮ জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওই অব্যবহৃত ভূমিসমূহে পিপিপির আওতায় আধুনিক হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজ, আন্তর্জাতিক মানের পাঁচ তারকা হোটেল কাম বাণিজ্যিক ভবন, মোটেল, বহুতলবিশিষ্ট শপিং মল কাম গেস্টহাউস ইত্যাদি নির্মাণের লক্ষ্যে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। সংসদেও বসন্তের ছোঁয়া : ঋতুরাজ বসন্তের আগমনে রঙিন নগর জীবনের রঙের ছোঁয়া লেগেছিল গতকাল জাতীয় সংসদেও। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, মহিলা এমপি, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়াসহ অনেক এমপিই গতকাল বাসন্তী রঙের পোশাক পরে সংসদে এসেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাসন্তী রঙের জামদানি পরে সন্ধ্যার পর জাতীয় সংসদে প্রবেশ করেন। শিরীন শারমিন চৌধুরী বাসন্তী শাড়ি পরে অধিবেশন পরিচালনা করেন। কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী পরেছিলেন হালকা বাসন্তী রঙের শাড়ি।

জাতীয় পার্টির নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরীও পরেছিলেন হলুদ শাড়ি। সাবেক শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানসহ দু-চারজন বাদে প্রায় সব নারী এমপিই বাসন্তী শাড়ি পরে এসেছিলেন সংসদে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow