Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:১৯
পাঁচ করদাতা পেল ট্যাক্স কার্ড
অনেকেই এখন স্বেচ্ছায় আয়কর দিতে আসছেন
—নজিবুর রহমান
নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের করদাতাদের মধ্যে সচেতনতা এবং দায়িত্ববোধ বাড়ায় এখন অনেকেই স্বেচ্ছায় আয়কর দিতে আসছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান। তিনি বলেন, বর্তমানে আমরা নতুন রাজস্ব বোর্ড, সুশাসন ও উন্নততর আধুনিক ব্যবস্থাপনা কাঠামোর আওতায় কাজ করছি।

কর বিভাগ সম্পর্কে জনগণের ধারণা আমূল বদলে গেছে। তৈরি হয়েছে করদাতাবান্ধব পরিবেশ। এনবিআর করদাতাদের উন্নততর করসেবা প্রদানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

গতকাল সেগুন বাগিচার রাজস্ব ভবনে এনবিআর আয়োজিত ‘পাঁচজন সেরা করদাতার হাতে ট্যাক্স কার্ড প্রদান’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন নজিবুর রহমান। তিনি ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ, অভিনেত্রী সুবর্ণা মোস্তফা, অভিনেতা আফজাল হোসেন ও নিয়াজ মোহম্মদ এফসিএ’র হাতে সেরা করদাতা হিসেবে ট্যাক্স কার্ড সম্মাননা প্রদান করেন। গত বছর নভেম্বরে এনবিআর যে ১৪১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে সেরা করদাতা ঘোষণা করে ট্যাক্স কার্ড প্রদান করে— তাদের মধ্যে এই পাঁচজনের নামও ছিল। তারা তখন ট্যাক্স কার্ড গ্রহণ করতে না পারায় গতকাল তা তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফজলে নূর তাপস বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কর দিয়ে আসছি। এবার সেরা করদাতা ও সুনাগরিক হিসেবে এনবিআরের স্বীকৃতি পেয়েছি।

তার মতে, কর দেওয়া এখন সহজলভ্য বিষয়। এনবিআরের সেরা করদাতাদের ট্যাক্স কার্ড প্রদানের সিদ্ধান্ত যুগোপযোগী। এর ফলে কর প্রদানে সাধারণ মানুষ আরও উৎসাহ পাবেন। ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ বলেন, সেরা করদাতের সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ড প্রদানের সিদ্ধান্তের মাধ্যমে এনবিআর দূরদর্শিতার পরিচয় দিয়েছে। এ সম্মাননার মধ্যদিয়ে প্রমাণ হলো এদেশে শুধু ব্যবসায়ীরা ট্যাক্স দেয় না, সাধারণ মানুষরাও ট্যাক্স দেয়। আর এনবিআর সাধারণ মানুষকে ট্যাক্স দিতে প্রতিনিয়ত উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে, যা ভবিষ্যতে দেশের কল্যাণে অত্যন্ত ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

সুবর্ণা মোস্তফা বলেন, বাবা সব সময় সঠিক হারে কর দিতেন। বাবার কথা অনুসরণ করে আমিও কর দিয়ে যাচ্ছি। এনবিআরের এই সম্মাননা প্রদানের ফলে সামনের দিনগুলোতে কর প্রদানে আমরা সবাই আরও বেশি উৎসাহ পাব। আফজাল হোসেন বলেন, এনবিআরের এই সম্মাননার ফলে সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে আমাদের নাম এসেছে। এটি অত্যন্ত আনন্দের। একজন অভিনয় শিল্পী হিসেবে আমি এ জন্য গর্ববোধ করছি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow