Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৫১
লোহার তৈরি ভাস্কর্যে হৃদয়ের কঠিন আবেগ
ব্রিটিশ হাইকমিশনারের বাসভবনে প্রদর্শনীতে মুগ্ধ অতিথিরা
নিজস্ব প্রতিবেদক
লোহার তৈরি ভাস্কর্যে হৃদয়ের কঠিন আবেগ
রাজধানীর বারিধারার দূতাবাস রোডে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের বাসভবনের বাগানে অনুষ্ঠিত হয় ‘হার্ড ইমোশনস’ শীর্ষক প্রদর্শনী —বাংলাদেশ প্রতিদিন

পঙ্গু বা পক্ষাঘাতগ্রস্তদের চিকিৎসা কেন্দ্র সেন্টার ফর দ্য রিহ্যাবিলিটেশন অব দ্য প্যারালাইজড—সিআরপির ওয়ার্কশপে তৈরি হয় হুইল চেয়ার। সেখানেই ভাস্কর আরহাম-উল-হক চৌধুরী পরিত্যক্ত লোহার টুকরো কুড়িয়েছেন।

সে লোহা নিজের মনমতো ভেঙেছেন। ভাঙা-গড়ার এই নিপুণ হাতে শৈল্পিক হৃদয়ের কঠিন আবেগে তৈরি করেছেন ভাস্কর্য। ব্রিটিশ হাইকমিশনারের বাসভবনে এ ভাস্কর্য প্রদর্শনী দেখে মুগ্ধতা প্রকাশ করলেন দেশি-বিদেশিরা।

বারিধারার দূতাবাস রোডে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের বাসভবনের বাগানে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয় ‘হার্ড ইমোশনস’ শীর্ষক প্রদর্শনী। লোহার মতো কঠিনের এই সহজ-সরল উপস্থাপনা দেখতে এসে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিকবিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. গওহর রিজভী। ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেকের এই মনোমুগ্ধকর শৈল্পিক আয়োজনে আরও শামিল হয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার বেনিয়াট পেয়েরে লারমি, সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, সিআরপির প্রতিষ্ঠাতা ভেলরি এ. টেইলর, ভাস্কর্যশিল্পী ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়, নৃত্যশিল্পী শর্মিলা ব্যানার্জি, জনপ্রিয় অভিনেতা তৌকীর আহমেদ, অভিনেত্রী বিপাশা হায়াত প্রমুখ। শিল্পী আরহাম-উল-হক চৌধুরীর তৈরি স্বতন্ত্র সৌন্দর্যের আধার হয়ে উঠেছে একেকটি ভাস্কর্য। দেখে মনে হয় ক্যানভাসে সূক্ষ্ম তুলির আঁচড়। অনবদ্য কোনো চিত্রকর্ম। আদতে ভাস্কর্য। মূর্ত-বিমূর্ত উভয় ধারায় কাজ করেছেন শিল্পী। এই শিল্পীর হাতে মানুষ, ফুল, পাখি, মাছ শিল্পরূপ পেয়েছে আশ্চর্য দক্ষতায়। প্রদর্শনীর মাছগুলো যেন জলেই আছে! মাছগুলোর শরীর কয়েকটি খণ্ডে বিভক্ত। মৃদু বাতাসে দোলে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow