Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ মার্চ, ২০১৭ ২৩:১৮
১৩ বছর পর মহিলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন আজ
পদ পেতে থেমে নেই তারাও
নিজস্ব প্রতিবেদক

জেলা-উপজেলা অপ্রস্তুত রেখে দীর্ঘ ১৩ বছর পর আজ মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন। রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটশন মিলনায়তনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সম্মেলন উদ্বোধন করবেন।

দীর্ঘদিন পর সংগঠনটির সম্মেলন হওয়ায় পদ-পদবি প্রত্যাশী ও নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা গেছে।  

২০০৩ সালের ১২ জুলাই সর্বশেষ সম্মেলন হয় মহিলা আওয়ামী লীগের। সম্মেলনে সংগঠনের সভানেত্রী নির্বাচিত হন আশরাফুন্নেসা মোশাররফ। সাধারণ সম্পাদিকা করা হয় ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরাকে। ২০০৯ সালে ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মনোনীত হলে সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পিনু খানকে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদিকা করা হয়।

আজকের সম্মেলনে কেন্দ্রীয় সভানেত্রী ও সাধারণ সম্পাদিকার নাম ঘোষণা করতে পারেন। কে হচ্ছেন মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী— এ বিষয়ে নির্দিষ্ট কারও নাম বেরিয়ে না এলেও সম্মেলন ঘিরে নিষ্ক্রিয়রাও পদ পেতে দৌড়ঝাঁপ করছেন।

একাধিক সূত্রে জানা যায়, সংগঠনটি চাঙ্গা করতে দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বয়ং দেখভাল করছেন। কিছু দিন আগে মহিলা আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেত্রী গণভবনে গেলে ঢাকা মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের উত্তর-দক্ষিণ কমিটি ভিন্ন দিনে করার নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে দলীয় কাজে সবাইকে সক্রিয় হতে বলেন তিনি। জানা যায়, বর্তমান কমিটি জেলা সম্মেলনের চেষ্টা করলেও স্থানীয় কোন্দলে তা বাস্তবায়ন করতে পারেনি। অনেক জেলায় সম্মেলন করতে গিয়ে প্রার্থীর বাসায় রাতযাপন ও তাদের কাছ থেকে উপহার সামগ্রী নিয়ে সমালোচনায় আসেন সফররত কেন্দ্রীয় নেত্রীরা। এ নিয়েও কয়েক জেলায় বিব্রত হতে হয়েছে কেন্দ্রীয় নেত্রীদের।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow