Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২১
বই পড়ে পুরস্কার পেল ৬৩১৩ শিক্ষার্থী
ব্যাপক সাড়া চট্টগ্রামে
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

বই পড়ে চট্টগ্রামের ৮১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৬ হাজার ৩১৩ শিক্ষার্থী পুরস্কৃত হয়েছেন। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন-‘বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র বই পড়া’ কর্মসূচিতে গতকাল চার হাজার ২৮৬ জনকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

আজ তৃতীয় পর্বে দুই হাজার ২৭ জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কার দেওয়া হবে। বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের দেশভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রমের আওতায় ২০১৬ সালে চট্টগ্রাম মহানগরীর ৮১টি স্কুলের প্রায় ১৭ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নেয়। গ্রামীণফোনের সহযোগিতায় এ কর্মসূচি পালিত হয়।

গতকাল সকালে নগরীর সিটি করপোরেশন মিউনিসিপ্যাল মডেল হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক এবং গ্রামীণফোন চট্টগ্রাম সার্কেলের হেড শাওন আজাদ।

অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, শিক্ষার্থীদের কেবল গতানুগতিক শিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে একজন সার্টিফিকেটধারী শিক্ষিত না হয়ে, তাদেরকে বই পড়ার মাধ্যমে মানবিক গুণাবলীসম্পন্ন একজন মানুষ হতে হবে। তবে এ ব্যাপারে অভিভাবকদের আরও বেশি সচেতন হওয়া দরকার।

অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ আলাউদ্দিনের দৈত্যের গল্পের উদ্ধৃতি দিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ করে বলেন, তোমাদের প্রত্যেকের ভিতর আলাউদ্দিনের চেরাগের দৈত্যের মতো একজন অসীম ক্ষমতাসম্পন্ন মানুষ বন্দী আছে। তাকে জাগানোই হলো আসল কাজ, যা বই পড়ার মাধ্যমে করা যায়। তোমরা যদি সেই কাজটা করতে পার, তবে বাংলাদেশ একদিন সত্যি সত্যিই সেরা দেশ হিসেবে পরিচিত হবে।

আনিসুল হক বলেন, জীবনে বড় কিছু করতে হলে বই পড়তে হবে। তিনি বিল গেটসের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, তিনি প্রচুর বই পড়তেন। এ জন্যই তিনি বিশ্ব সেরা ধনী বিল গেটস হতে পেরেছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow