Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০২:১২
প্রশ্ন ফাঁস বন্ধ করতে হলে আগে কারণ চিহ্নিত করতে হবে
গোলটেবিলে বক্তারা
নিজস্ব প্রতিবেদক

শিক্ষাব্যবস্থায় প্রশ্নফাঁস বন্ধ করতে হলে এর পেছনের কারণগুলো আগে চিহ্নিত করতে হবে। পরে এসব সমস্যা সমাধান করতে হবে। প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রশ্নফাঁস হলে প্রযুক্তির ব্যবহার বন্ধ করে নয়, প্রযুক্তি দিয়েই এ সমস্যার সমাধান করতে হবে। গতকাল বেসিস মিলনায়তনে আয়োজিত ‘প্রশ্নফাঁস বিপর্যয়, কারণ অনুসন্ধান ও প্রযুক্তিগত সমাধান’ শীর্ষক গোলটেবিলে এসব কথা বলেন বক্তারা। বাংলাদেশ   আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরাম, জাগো ফাউন্ডেশন, পরিবর্তন চাই ও ঢাকা ইউনিভার্সিটি (ঢাবি) আইটি সোসাইটি যৌথভাবে এর আয়োজন করে।

বিডিজবসের প্রতিষ্ঠাতা ও বেসিসের সাবেক সভাপতি ফাহিম মাশরুরের সঞ্চালনায় ঢাবি আইটি সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আল ইমরান, পরিবর্তন চাইয়ের প্রতিষ্ঠাতা ফিদা হক, বেসিসের সিনিয়র সহসভাপতি রাসেল টি আহমেদ প্রমুখ বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানের মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন বন্ডস্টেইন লিমিটেডের প্রধান শাহরুখ ইসলাম।

বক্তারা বলেন, প্রযুক্তির অপব্যবহার করে যেমন প্রশ্নফাঁস সমস্যা তৈরি হয়েছে, সেভাবে প্রযুক্তির ব্যবহার করেই এটি রোধ করা সম্ভব। একই সঙ্গে প্রযুক্তির ব্যবহার করে অপরাধীদের শনাক্তকরণ, আইনের কঠোর প্রয়োগ ও শাস্তি, দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করেই এ বিপর্যয় সামাল দিতে হবে। তারা বলেন, এসএসসি ও অন্যান্য পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস এখন মহামারী আকার ধারণ করেছে। এ সমস্যা এখনই মোকাবিলা করা না গেলে একটি প্রজন্মের সম্ভাবনাকে হত্যা করা হবে।

প্রশ্নফাঁস রোধে বক্তাদের বিভিন্ন সুপারিশ ও প্রস্তাব শিক্ষা মন্ত্রণালয়, বোর্ড কর্তৃপক্ষ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে পেশ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow