Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ০১:০৪
বসুন্ধরায় চার মেলা বস্ত্রশিল্পের আধুনিক প্রযুক্তির প্রদর্শনী
নিজস্ব প্রতিবেদক

ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) শুরু হয়েছে বস্ত্র ও পোশাকশিল্পের ওপর চার আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী। বস্ত্র ও পোশাকশিল্পের মেশিনারি এবং প্যাকেজিং প্রযুক্তির এ প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছে বিশ্বখ্যাত বিভিন্ন কোম্পানি। প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের উৎপাদন,  নিরাপত্তা, কর্মপরিবেশ, দক্ষতা, পণ্যের মান, মোড়কজাতকরণ-সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি নিয়ে প্রদর্শনীতে হাজির হয়েছে। গতকাল শুরুর দিন মেলাপ্রাঙ্গণে গিয়ে দেখা গেছে, এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকাসহ ১২টি দেশ থেকে বস্ত্র ও পোশাকশিল্পের সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সর্বশেষ প্রযুক্তি নিয়ে হাজির হয়েছে। আন্তর্জাতিক মানের স্যুয়িং, নিটিং, এমব্রয়ডারি, লন্ড্রি, ফিনিশিং, ডায়িং, ক্যাড/ক্যাম, প্রিন্টিং কাটিং, স্প্রেডিং মেশিনারি প্রদর্শন করছে তারা। বিভিন্ন কোম্পানি প্রাকৃতিক ও কৃত্রিম সুতা এবং ওভেন ও নিট শিল্পের জন্য উভয় মিশ্রণের সর্বাধুনিক সংগ্রহ তুলে ধরেছে। প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ গার্মেন্টস অ্যাকসেসরিজ, লেবেলিং, জিপার, ট্যাগ, ট্যাপ, থ্রেড, রিবন, বাটন, রিভেট, লেইস, হুক, ট্রান্সফার ফিঞ্চ, পেপার, ইন্ক ইত্যাদিসহ সংশ্লিষ্ট মেশিনারি তুলে ধরেছে। এবারের প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ, ভারত, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, শ্রীলঙ্কা, জার্মানি, সিঙ্গাপুর, জাপান, তাইওয়ান ও হংকংয়ের শতাধিক প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের উৎপাদন, নিরাপত্তা, কর্মপরিবেশ, দক্ষতা, পণ্যের মান, বৈচিত্র্য, মোড়কজাতকরণ ইত্যাদি কাজে ব্যবহৃত প্রযুক্তি উপস্থাপন করছে।

রেডকার্পেট৩৬৫ লিমিটেড আয়োজিত এ মেলা চলবে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত। আয়োজকরা বলছেন, পোশাক খাত ২০২১ সালের মধ্যে ৫০ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানির লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। এ আয়োজনে তৈরি পোশাকশিল্পের আধুনিকায়ন, মানোন্নয়ন ও মূল্যমান বৃদ্ধির প্রযুক্তিগত দিকনির্দেশনা থাকবে। তারা বলেন, চার দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীগুলো একই ছাদের নিচে হওয়ায় টেক্সটাইল ও তৈরি পোশাক খাত-সংশ্লিষ্টদের জন্য অভিজ্ঞতা অর্জনের অসাধারণ এক সুযোগে পরিণত হয়েছে। প্রদর্শনীগুলো শীর্ষস্থানীয় আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে ইতিমধ্যে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। প্রদর্শনী প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow