Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৪
নতুন সাজে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
সেবা নিশ্চিতে ওয়ার্ড পুনর্বিন্যাস
রেজা মুজাম্মেল, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে শয্যার চেয়ে তিন-চারগুণ বেশি রোগী থাকে। প্রায় সব ওয়ার্ডে টইটম্বুর অবস্থা। তবে এবার উন্নত সেবা নিশ্চিতে ওয়ার্ডগুলোকে পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। সাজানো হচ্ছে নতুনরূপে। অতিরিক্ত রোগীর সেবা নিশ্চিতে চমেক কর্তৃপক্ষ এ উদ্যোগ নেয়। ইতিমধ্যে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। জানা যায়, চমেক হাসপাতালে বর্তমানে অনুমোদিত শয্যা এক হাজার ৩৪৮টি। কিন্তু প্রতিনিয়ত এখানে রোগী ভর্তি থাকে দুই হাজার ২০০ থেকে আড়াই হাজারের বেশি। গত ১ জানুয়ারি এখানে মোট রোগী ভর্তি ছিল দুই হাজার ৪৩৯ জন, ওইদিন নতুন রোগী ভর্তি হয় ৫১৯ জন। গত ৩১ ডিসেম্বর মোট ভর্তি রোগী ছিল দুই হাজার ৩৬৬ জন, ওইদিন নতুন ভর্তি হয় আরও ২৮৩ জন, ৩০ ডিসেম্বর ভর্তি রোগী ছিল দুই হাজার ৩৫৪ জন, নতুন ভর্তি হয় ৩৭৯ জন। ১৯৫৭ সালে যাত্রা করা এ হাসপাতালে বর্তমানে ৩৭টি ওয়ার্ডে ৪৮টি বিভাগ আছে। বুধবার দুপুরে হাসপাতালের নিউরো সার্জারি বিভাগ, নিউরো মেডিসিন, অর্থোপেডিক এবং শিশু বিভাগে শয্যার বাইরে তিনগুণ পর্যন্ত রোগী দেখা যায়। এসব ওয়ার্ডের বারান্দা এবং মেঝেতেও রোগী রাখতে হয় বলে জানা যায়। চমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আখতারুল ইসলাম বলেন, ‘হাসপাতালে শয্যা সংখ্যার তুলনায় রোগী তিনগুণ বেশি থাকে। তাই নতুন একটি কার্ডিয়াক ভবনে কিছু ওয়ার্ড স্থানান্তর করে রোগীর সেবা নিশ্চিতের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে এ ব্যাপারে অফিস আদেশ জারি করে দ্রুত প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে বিভাগীয় প্রধান, ইউনিট প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে বলা হয়েছে।’ হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, নতুন বিন্যাসের মধ্যে আছে ১২ নম্বরে ওয়ার্ড কার্ডিওলজি বিভাগ স্থানান্তর করা হয়েছে হাসপাতালের জি ব্লকের দ্বিতীয় তলায়। কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগকে নেওয়া হয়েছে কার্ডিয়াক সার্জারি ভবনের তৃতীয় ও চতুর্থ তলায়। তাছাড়া কার্ডিয়াক সার্জারি ভবনের পঞ্চম তলায় স্থানান্তর করা হয়েছে অর্থোপেডিক ও ট্রমাটলজি বিভাগ, ষষ্ঠ তলায় স্থানান্তর করা হয়েছে প্রসূতি বিভাগ, সপ্তম তলায় স্থানান্তর করা হয়েছে ওরাল অ্যান্ড মেক্সিলো ফেসিয়াল সার্জারি বিভাগ ও স্টুডেন্ট ওয়ার্ড, অষ্টম তলায় স্থানান্তর করা হয়েছে ভাসকুলার সার্জারি ও কার্ডিয়াক অ্যানেসথেসিয়া বিভাগ, নবম তলায় নেওয়া হয়েছে শিশু সার্জারি বিভাগ, একাডেমিক, প্রশাসনিক পোস্ট অপারেটিভ অ্যান্ড রিকভারি ব্লক, দশম তলায় নেওয়া হয়েছে শিশু সার্জারি বিভাগ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow