Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:৩৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
বাণিজ্য মেলায় সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতা ওয়ালটন
অনলাইন ডেস্ক
বাণিজ্য মেলায় সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতা ওয়ালটন
ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ইভা রেজওয়ানার হাতে প্রথম পুরস্কারের ক্রেস্ট তুলে দিচ্ছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরুাফুল ইসলাম

২২তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতা এবং প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরষ্কার পেয়েছে ওয়ালটন।
 
আয়োজক সংস্থা রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) ও বাণিজ্য মন্ত্রনালয় গতকাল শনিবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন।

ওয়ালটনের পক্ষে পুরষ্কার দুটি গ্রহণ করেন কোম্পানিটির নির্বাহী পরিচালক ও বিপণন বিভাগের প্রধান সমন্বয়ক ইভা রেজওয়ানা। তার হাতে পুরষ্কারের ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

মেলায় ওয়ালটন সর্বমোট ৩৬ লাখ ৩ হাজার ৮৯৯ টাকা ভ্যাট প্রদান করে। একই ক্যাটাগরিতে দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার লাভ করে যথাক্রমে র‌্যাংগস ইলেকট্রনিক্স ও হাতিল ফার্নিচার। উল্লেখ্য, গত বছরের বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন ১৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৮৪ টাকা ভ্যাট প্রদান করে শ্রেষ্ট ভ্যাটদাতার স্বীকৃতি অর্জন করেছিল। এবার গতবারের তুলনায় দ্বিগুনেরও বেশি ভ্যাট প্রদান করে ওয়ালটন।
সেরা প্যাভিলিয়ন ক্যাটাগরিতেও প্রথম পুরস্কার লাভ করে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে তিনটি প্রতিষ্ঠান। এগুলো হচ্ছে আকতার ফার্নিচার, হাতিল ফার্নিচার ও আকিজ ফুড এন্ড বেভারেজ। একই ক্যাটাগরিতে নাদিয়া ফার্নিচার, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড ও কোকোলা ফুড প্রডাক্টস পায় তৃতীয় পুরস্কার।

ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক (পিআর এ্যান্ড মিডিয়া) হুমায়ুন কবীর বলেন, বাণিজ্য মেলায় ভ্যাটের পুরষ্কার প্রচলনের পর থেকে প্রতি বছরই শ্রেষ্ঠত্বের সম্মান পাচ্ছে ওয়ালটন। এই পুরষ্কার আমাদের দায়িত্ব আরো বাড়িয়ে দিলো।
 
বিপণন বিভাগের প্রধান সমন্বক ইভা রিজওয়ানা বলেন, প্রতি বছরই সেরা প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়নের পুরষ্কার অর্জন করছি আমরা। এজন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, ইপিবি এবং সর্বোপরি ক্রেতা-দর্শনার্থীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।
 
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ব্যবসায়িরাই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। উদ্ভাবনের দিক দিয়ে বাংলাদেশ অনেক বেশি এগিয়ে গেছে। বাণিজ্য মেলা সেই উদ্ভাবনী শক্তিকে উৎসাহ জোগাবে। ভবিষ্যতে এই মেলা আরও বড় পরিসরে হবে বলে।

রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান বেগম মাফরুহা সুলতানা বলেন, এবার বিক্রি অর্ডার পাওয়া গেছে ২৪৩ দশমিক ৪৪ কোটি টাকা, পণ্য বিক্রি হয়েছে ১১৩ দশমিক ৫৩ কোটি টাকা। গত বারের চেয়ে এবার মেলায় ভালো বিক্রি হয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow