Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ৭ মার্চ, ২০১৭ ১৯:৩৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
দ্বিগুন এলইডি টিভি বিক্রির টার্গেট ওয়ালটনের
আসছে আগামী প্রজম্মের স্পেকট্রাকিউ টিভি
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
দ্বিগুন এলইডি টিভি বিক্রির টার্গেট ওয়ালটনের

বিশ্বমান, সাশ্রয়ী মূল্য এবং হাতের নাগালে আইএসও স্ট্যান্ডার্ড বিক্রয়োত্তর সেবা- প্রধানত এই তিন কারণেই ওয়ালটন এলইডি টিভির চাহিদা তুঙ্গে। অভ্যন্তরীণ বাজারে প্রায় প্রতিমাসেই বাড়ছে দেশীয় ব্র্যান্ডটির মার্কেট শেয়ার।

গত বছর এলইডি টিভি বিক্রিতে ৩১৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। চলতি বছর ৭ লাখ এলইডি টিভি বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে ওয়ালটন। যা গত বছরের চেয়ে ১০৩ শতাংশ বেশি।  

সূত্র মতে, নতুন নতুন প্রযুক্তির সংযোজন, উৎপাদন বৃদ্ধি, মানোন্নয়ন এবং সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিভিন্ন মডেলের এলইডি টিভি বাজারে ছাড়ছে ওয়ালটন। নিজস্ব কারখানায় উৎপাদন এবং আধুনিক প্রযুক্তি সংযোজনের ফলে কমে এসেছে পণ্যর উৎপাদন খরচ। ফলে ওয়ালটন এলইডি টিভির দাম কয়েক দফা কমেছে। যার প্রেক্ষিতে চাহিদা ব্যাপক বেড়েছে। গত বছর দেশের বাজারে ৩ লাখ ৪৪ হাজার এলইডি টিভি বিক্রি হয়েছে, যা কিনা ২০১৫ সালের তুলনায় ৩১৩ শতাংশ বেশি। চলতি বছর এলইডি টিভি বিক্রিতে ১০৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জনের টার্গেট নিয়েছে ওয়ালটন।  

ক্রমবর্ধমান গ্রাহকচাহিদার প্রেক্ষিতে প্রবৃদ্ধির এই লক্ষ্যমাত্রা সহজেই অর্জিত হবে বলে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ। তাদের সাহস যোগাচ্ছে গত জানুয়ারীতে অনুষ্ঠিত ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার রেকর্ড। মেলায় গতবারের চেয়ে ১১৮.২১ শতাংশ বেশি এলইডি টিভি বিক্রি হয়েছে ওয়ালটনের। প্রবৃদ্ধির ধারাবাহিকতা ফেব্রয়ারি মাসেও বজায় ছিলো।  

জানা গেছে,  দেশেই উচ্চ গুণগত মানসম্পন্ন এলইডি টিভি তৈরির উদ্দেশ্যে গত বছর বিশাল বিনিয়োগ করেছে ওয়ালটন। কারখানায় সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও বিশ্বের লেটেস্ট যন্ত্রপাতি স্থাপন করেছে। পৃথক ম্যানুফ্যাকচারিং লাইন স্থাপনের মাধ্যমে প্লাস্টিক কেবিনেট, স্পীকার, রিমোট কন্ট্রোল ইউনিট, মাদার বোর্ড, ইলেকট্রিক পাওয়ার ক্যাবল, এলইডি টিভির প্যানেলসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক যন্ত্রপাতি নিজস্ব কারখানাতেই তৈরি করা শুরু করে ওয়ালটন। নিজস্ব তত্ত¡াবধানে সর্বোচ্চ মানের এলইডি টিভি তৈরির পাশাপাশি উৎপাদন খরচও বহুলাংশে কমেছে। ফলে গ্রাহক পছন্দের শীর্ষে এসেছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের এলইডি টিভি।  

ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ও বিপণন বিভাগের প্রধান এমদাদুল হক সরকার বলেন, স্থানীয় টেলিভিশন বাজারে চলতি বছরেও গ্রাহক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে থাকবে ওয়ালটন। এর পেছনে তিনি যুক্তি দেখান- এই বছরেও স্পেকট্রাকিউ, ৭৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি, ফোরকে রেজ্যুলেশনের ৯৫ ইঞ্চির বড় পর্দার টিভিসহ বেশকিছু নতুন প্রযুক্তি ও মডেলের এলইডি টিভি বাজারে ছাড়ছে ওয়ালটন। আরো ছাড়া হবে এন্ড্রয়েড স্মার্ট ও ইন্টারনেট টিভি। এসব টেলিভিশন একদিকে যেমন উচ্চ গুণগত মানসম্পন্ন, অন্যদিকে দামও হবে ক্রেতাদের সাধ্যের মধ্যে।  

ওয়ালটন টেলিভিশন বিপণন বিভাগের প্রধান আব্দুল বারী জানান, স্থানীয় বাজারে ওয়ালটন ১৯, ২০, ২৪, ২৮, ৩২, ৩৯, ৪০, ৪৩, ৪৯ ও ৫৫ ইঞ্চির ৭০টিরও বেশি মডেলের এলইডি, এন্ড্রয়েড স্মার্ট ও ইন্টারনেট টেলিভিশন বাজারজাত করছে। এই টিভির দাম সর্বনিম্ন ৮৯৯০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১ লাখ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত। তিনি আরো জানান, ওয়ালটন টিভিতে রযেছে ছয় মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি , দুই বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি। এছাড়া সর্বোচ্চ ৩৬ মাসের সহজ কিস্তিতে কেনার সুবিধা রয়েছে।  


বিডি প্রতিদিন/৭ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow