Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২ জুন, ২০১৬ ০৩:২৪
মাস্টার বাহিনী প্রধানসহ ১০ দস্যু কারাগারে
বাগেরহাট প্রতিনিধি

আত্মসমর্পণকারী সুন্দরবনের বনদস্যু মাস্টার বাহিনীর প্রধান মোস্তফা শেখ ওরফে কাদের মাস্টারসহ ১০ দস্যুকে গতকাল বিকালে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার সকালে মংলায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ৫২টি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র ও বিভিন্ন ধরনের ৫ হাজার রাউন্ড গোলাবারুদ জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন এসব বনদস্যু।

তাদের বিরুদ্ধে ওইদিন রাতে র‌্যাব-৮-এর ডিএডি মো. হাবিব বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে মংলা থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। গতকাল বিকালে ওই দুটি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মংলা থানার এসআই মঞ্জুরে এলাহী বনদস্যু মাস্টার বাহিনী প্রধানসহ ১০ দস্যুকে বাগেরহাটের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠান। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালত সুন্দরবনের ত্রাস বনদস্যু মাস্টার বাহিনী প্রধান মো. মোস্তফা শেখ ওরফে কাদের মাস্টারসহ ১০ দস্যুকে বাগেরহাট কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মাস্টার বাহিনী প্রধানসহ ওই বাহিনীর ১০ দস্যুকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে পুলিশ ভ্যানে করে প্রথমে আদালতে ও পরে বাগেরহাট কারাগারে পাঠানো হয়। র‌্যাব-৮-এর ডিএডি মো. হাবিব বাদী হয়ে প্রথম অস্ত্র মামলায় নয় বনদস্যুকে আসামি করে করেন। এ নয় বনদস্যুর মধ্যে মাস্টার বাহিনী প্রধান মো. মোস্তফা শেখ ওরফে কাদের মাস্টার (৪৬), তার সেকেন্ড ইন কমান্ডার সোহাগ আকন্দ (৩৭), সোলায়মান শেখ (২২), সুলতান খাঁ (৫৮), ফজলু শেখ (৩৪), শাহীন শেখ (৩২), সুমন সরদার (২৬), হারুন (২৪) ও আরিফ সরদারকে (২২) আসামি করা হয়। অন্য অস্ত্র মামলায় একমাত্র আসামি করা হয় আসাদুল ইসলাম কোকিলকে (২৭)।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow