Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ জুন, ২০১৬ ০০:২২
হত্যা মামলায় চার আসামির মৃত্যুদণ্ড
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় চাঞ্চল্যকর ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন হত্যা মামলায় চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক রেজা মো. আলমগীর হাসান এক জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

এ সময় দণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামি আদলতে উপস্থিত ছিলেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মো. হাসান ওরফে মাইকেল, সালমান, রাহাতুজ্জামান ও নিশিকান্ত ঘোষ। এদের মধ্যে নিশিকান্ত পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৩ সালের ১৯ জানুয়ারি কুষ্টিয়া শহরের নবাব সিরাজউদ্দৌলা সড়কে (এন এস রোড) আলমগীর হোসেন নামে তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) এক জুতা ব্যবসায়ীকে নিজ বাড়িতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। পরে দুর্বৃত্তরা আলমগীগের লাশ ওই বাড়িতে রেখে বাইরে থেকে দরজায় তালা দিয়ে চলে যায়। পরদিন সকালে তালা ভেঙে আলমগীরের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় আলমগীরের ভাই জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে কুষ্টিয়া সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে হত্যা মামলা করেন। পরে তদন্তে চার দুর্বৃত্তের নাম বেরিয়ে আসে। এর মধ্যে পুলিশ কুষ্টিয়া শহরের আড়ুয়াপাড়া এলাকার হারুনের ছেলে মো. হাসান ওরফে মাইকেল, একই এলাকার বশির আহমেদের ছেলে সালমান, শহরের রাজারহাট এলাকার আবদুর রহিমের ছেলে রাহাতুজ্জামানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। অপর আসামি ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের কেষ্ট ঘোষের ছেলে নিশিকান্ত ঘোষ ঘটনার পর থেকে পলাতক। আলমগীরের সঙ্গে আসামিদের যৌন সম্পর্ক নিয়ে বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে বলে পুলিশের তদন্তে বেরিয়ে আসে। পরে পুলিশ এ চারজনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। এ মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ ও যুক্তিতর্ক শেষে আদালত চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেন। মামলার রায়ে মামলার বাদী জাহাঙ্গীর আলম সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। তিনি দ্রুত রায় কার্যকরের দাবি জানিয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow