Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৬ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ জুন, ২০১৬ ০০:০৩
জোয়ার-ভাটার ফাঁদে ৩০ গ্রামের মানুষ
কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

জোয়ার-ভাটার ফাঁদে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার চার ইউনিয়নের ৩০ গ্রামের মানুষ। ফের অমাবস্যার প্রভাবে গত দুদিন ধরে উপজেলার মহিপুর, চম্পাপুর, লাতাচাপলী ও নীলগঞ্জ ইউনিয়নের গ্রামের পর গ্রাম তলিয়ে যায়।

অস্বাভাবিক জোয়ারের তাণ্ডবে পুকুর, ঘেরের মাছ ভেসে গেছে। বাড়ি ঘরসহ ফসলি জমি অন্তত ৩/৪ ফুট পানিতে তলিয়ে গেছে। ওইসব গ্রামের মানুষ অনেকটাই জোয়ার-ভাটার ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। এদিকে সাগরের উত্তাল ঢেউয়ে কুয়াকাটা সৈকতের জিরো পয়েন্ট, ঝাউবাগান, ইকোপার্ক, লেম্বুরচরের বনাঞ্চনসহ পর্যটকদের দর্শনীয় বেশ কয়েটি স্পট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া কুয়াকাটার মূল রক্ষাবাঁধটিও এখন চরম ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

আমতলী ও তালতলীর ৮টি ইউনিয়ন প্লাবিত : আমতলী প্রতিনিধি জানান, রবিবার অমাবস্যার জো থাকায় পায়রা নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে পানি বৃদ্ধি পেয়ে বরগুনার আমতলী ও তালতলী উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের চর ও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। অস্বাভাবিক জোয়ারের পানিতে আমতলী ফেরি ঘাটের গ্যাংওয়ে তলিয়ে যাওয়ায় বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় জেলা সদর বরগুনার সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ ছিল। আমতলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এস এম বদরুল আলম জানান, জোয়ারের পানিতে আউশ ক্ষেতের তেমন ক্ষতি হবে না।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow