Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৬ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ৬ জুন, ২০১৬ ০০:০৬
দুর্গেই দুর্গতি জাতীয় পার্টির
নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

এক সময়ে জাতীয় পার্টির দুর্গ রংপুরেই এখন দুর্গতির মুখে পড়েছে দলটি। কিছুতেই ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না দলটি। প্রতিটি স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের ভরাডুবি হয়েছে। সদ্য শেষ হওয়া ইউপি নির্বাচনেও রংপুরের ৬৯টি ইউনিয়নের মধ্যে মাত্র ৭টিতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। জাতীয় পার্টির জনপ্রিয়তায় ঘাটতি নেই বলে দাবি করে দলটির কো-চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী জিএম কাদের বলেন, ২০১৪ সালের পর থেকে কোনো নির্বাচনই সুষ্ঠু ও অবাধ হয়নি। সর্বশেষ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জনগণের প্রতিফলন ঘটেনি। নির্বাচনের নামে প্রহসন হয়েছে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৬টি আসনের মধ্যে দুটিতে জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। গত উপজেলা নির্বাচনে রংপুরের আট উপজেলার একটিতেও জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা জয়ী হতে পারেননি। গত বছর অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে বদরগঞ্জ পৌরসভায় জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী ভোট পেয়েছেন ১৭১টি। হারাগাছা পৌরসভায় প্রার্থীই দিতে পারেনি জাতীয় পার্টি। রংপুর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচনে সাড়ে ২৮ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছেন জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী। গত শনিবার শেষ হওয়া ছয় ধাপে ইউপি নির্বাচনে রংপুরে ৬৯টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে মাত্র ৭টিতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান প্রার্থীরা নির্বাচিত হন। অথচ স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচিত হন ১১টিতে। রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির প্রবীণ নেতা ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ নুর আহমেদ টুলু বলেন, সুযোগ সন্ধানীদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে রংপুর জাপা। বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. তুহিন ওয়াদুদ মনে করেন, গণমানুষ বিমুখতা, দলের অন্তর্দ্বন্দ্ব, দুর্বল সাংগঠনিক ভিত্তি ইত্যাদি কারণে রংপুরে পার্টির স্থান শূন্যের কোঠায় নেমে এসেছে।




এই পাতার আরো খবর
up-arrow