Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ জুন, ২০১৬ ২৩:৫৪
মাদারীপুরের স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোর চিকিৎসাসেবার বেহাল দশা
৩৮ চিকিৎসক নিয়োগ দিলেও যান না কেউ কর্মস্থলে
বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

মাদারীপুরের চারটি উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দে গুলোর চিকিৎসা সেবার বেহাল দশা। দুই বছর আগে সরকার এসব কেন্দে  ৩৮ জন নতুন চিকিৎসক নিয়োগ দিলেও কর্মস্থলে থাকেন না কেউ।

এতে ভেঙে পড়েছে জেলার তৃণমূল পর্যায়ের স্বাস্থ্যসেবা। জেলার সিভিল সার্জন বলছেন, ইতোমধ্যে কয়েক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, মাদারীপুরের চারটি উপজেলায় স্থানীয় সরকারের প্রশাসনিক কাঠামোতে ৬০টি ইউনিয়ন থাকলেও, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ  রয়েছে ৫৮টিতে। তৃণমূল পর্যায়ের এসব স্বাস্থ্য কেন্দে  ২০১৪ সালের ১ আগস্ট ৩৮ জন এমবিবিএস চিকিৎসক নিয়োগ দেয় সরকার। কিন্তু কর্মস্থলে ডাক্তারদের উপস্থিতি না থাকা এবং অন্য জনবল সংকটের কারণে চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এসব কেন্দে  নিয়োগ পাওয়া অনেক চিকিৎসক মাসে একদিন আসেন বেতন তোলার জন্য হাজিরা খাতায় সই দিতে। সরেজমিনে কালকিনি উপজেলার কাজী বাকাই, নবগ্রাম, বালিগ্রাম ও সদর উপজেলার ধুরাইল, খোয়াজপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দে  ঘুরে দেখা গেছে, এখানে নিয়োগ পাওয়া কোনো এমবিবিএস চিকিৎসক কর্মস্থলে নেই। বালিগ্রাম ইউনিয়নের মোহম্মদ আলী বলেন, ‘আমি বউকে নিয়ে স্বাস্থ্য কেন্দে  দুই দিন গিয়েছি। কোনো এমবিবিএস ডাক্তার পাই নাই। এখানে যে এমবিবিএস ডাক্তার আসার কথা তাও কোনদিন শুনিনি। ’

কালকিনি উপজেলার কাজী বাকাই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দে র এমএলএসএস অসীম গুপ্ত জানান, আড়াই বছর ধরে এই স্বাস্থ্য কেন্দ টিতে চাকরি করছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত এমবিএসএস চিকিৎসক এখানে পাইনি। মাদারীপুরের সিভিল সার্জন দিলীপ কুমার দাস জানান, স্বাস্থ্য কেন্দ গুলোতে নিয়োগ পাওয়া পাঁজনের বিরুদ্ধে আমরা বিভাগীয় মামলা করেছি। আর যারা নিয়মিত এসব কেন্দে  আসেন না, তাদের নিয়মিত স্বাস্থ্য কেন্দে  আসার জন্য অফিসিয়ালি চেষ্টা করা হচ্ছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow