Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১১ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুন, ২০১৬ ০১:৫০
নব্য চেয়ারম্যানের অ্যাকশন
কক্সবাজার প্রতিনিধি
নব্য চেয়ারম্যানের অ্যাকশন
শাস্তির নামে যুবককে নিজেই পেটাচ্ছেন চেয়ারম্যান

বান্ধবীকে নিয়ে যাওয়ার সময় সিএনজিচালিত অটোরিকশা থেকে নামিয়ে এনে এক তরুণকে নির্মম নির্যাতন করেছেন নবনির্বাচিত একজন ইউপি চেয়ারম্যান। হাত-পা বেঁধে রেখে লাঠি দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ পেটানোর পর তিনি তরুণটিকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দেন। এরপর তার ওপর উঠে দাঁড়িয়ে পদদলিত করতে থাকেন। তরুণের চিৎকারে আশপাশে ভিড় জমে গেলেও চেয়ারম্যানের ভয়ে কেউ এগিয়ে আসেননি। দফায় দফায় নির্যাতনের পর তরুণটিকে পুলিশের হাতে তুলে দেন চেয়ারম্যান। পুলিশ তাকে নিয়ে যায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে। পুলিশ অভিযোগ করে, তরুণটি ইভ টিজিংয়ে জড়িত। ইউএনও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে তত্ক্ষণাৎ তাকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেন। তাকে সহযোগিতার দায়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালককেও এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার দুর্গম টৈটং ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটেছে। নির্যাতনের ভিডিওচিত্র ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়েছে। ওই চেয়ারম্যানের নাম জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী। গত মার্চে দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে টৈটং ইউপির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকও তিনি। নির্যাতনের শিকার তরুণের নাম রেজাউল করিম (২২)। তার বাড়ি ওই ইউনিয়নের গুদিকাটা গ্রামে। নির্যাতনের সময় তিনি দাবি করেন, তার বান্ধবী স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় পড়েন। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। সম্মতি নিয়েই বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। কথা ছিল আদালতে গিয়ে তারা বিয়ে করবেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow