Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১৩ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ জুন, ২০১৬ ০১:৪৯
ঋণ থেকে বঞ্চিত প্রকৃত খামারি
রূপগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদফতরের মাঠ সুপারভাইজারের অনিয়মের কারণে প্রকৃত খামারিরা ঋণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, উপজেলা মাঠ সুপারভাইজার আবদুস সাত্তার ৫ বছর আগে রূপগঞ্জে দায়িত্ব পান।

তার বাড়ি উপজেলার মর্তুজাবাদ এলাকায়। অভিযোগ রয়েছে— অধিদফতরের নিয়মানুযায়ী মত্স্য, পল্ট্রি ফার্ম, গাভী পালন, হাঁস-মুরগি পালনসহ বিভিন্ন খামারি ঋণ পাচ্ছেন না। মাছুমাবাদ এলাকার আসাদুজ্জামান সিকদারের অভিযোগ, আমার পুকুর রয়েছে। মাছের খামারের জন্য ঋণের আবেদন করি কিন্তু অধিক পরিমাণে ঘুষ দাবি করায় ঋণ গ্রহণ করা হয়নি। ধার-দেনা করে মাছ চাষ করছি। কাঞ্চন এলাকার বাবু মিয়া বলেন, হাঁস-মুরগির খামারের জন্য ক্ষুদ্র ঋণ চেয়েছিলাম। শতকরা প্রায় অর্ধেক ঘুষ দাবি করায় ঋণ গ্রহণ করিনি। কালাদি এলাকার রাসেল মিয়ারও একই অভিযোগ। অভিযোগ রয়েছে, বাগবেড় এলাকার লাভলি আক্তার ৫০ হাজার, পিতলগঞ্জ এলাকার আমিনুল ইসলাম ৫০ হাজার, পারভিন আক্তার এক লাখ টাকাসহ আরও অনেকে খামার না থাকলেও ঋণ পেয়েছেন। বঞ্চিত হচ্ছেন প্রকৃত খামারিরা। এ বিষয়ে আবদুস সাত্তার বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদফতর কর্মকর্তা মাসুদ মজুমদার বলেন, এ ধরনের অভিযোগ আমার জানা নেই। পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

up-arrow