Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শনিবার, ২ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২ জুলাই, ২০১৬ ০০:২২
কুড়িগ্রামে চাল বিতরণে অনিয়ম, পার্বতীপুরে লুট
কুড়িগ্রাম, দিনাজপুর প্রতিনিধি

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কুড়িগ্রামে ৩টি পৌরসভাসহ ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে বিতরণ করা হলো ভিজিএফের চাল। কিন্তু এ চাল বিতরণে যাত্রাপুর ইউনিয়ন পরিষদে অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নে অনেক প্রকৃত দরিদ্র ভিজিএফের আওতায় পড়েনি। বুধবার সরেজমিনে দেখা  গেছে, যাত্রাপুর ইউপির ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিধবা আকলিমা ট্রাকের নিচে চাল কুড়াচ্ছে। কেননা তিনি ভিজিএফের কার্ড পাননি। এরকম বঞ্চিত কয়েকজনের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, নতুন জনপ্রতিনিধি কেউ এখনো দায়িত্ব পাননি। তাই সাবেক চেয়ারম্যান আ. গফুর ও মেম্বাররা এ দায়িত্বে রয়েছেন। হয়তো তারা এবারেই যেহেতু সুযোগ পেয়েছেন তাই তারা তাদের পছন্দের লোকদের ভিজিএফের কার্ড দিয়েছেন। অন্যদিকে ভুরুঙ্গামারীতে ৪.৫৫ মে. টন (৯১ বস্তা) চাল আত্মসাতের উদ্দেশ্যে আন্ধারীঝাড় বাজারের চাল ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী ও মাহফুজার রহমান ফজলের গুদামে লুকিয়ে রাখে। যা স্থানীয় জনগণের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজাহারুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার রবিউল ইসলাম ও থানা ভারপ্রাপ্ত অফিসার জিয়া লতিফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে যান এবং ওই দুই ব্যবসায়ীর গুদামের তালা ভেঙে ৪.৫৫ মেট্রিক টন (৯১ বস্তা) চাল উদ্ধার করে। এদিকে দিনাজপুরের পার্বতীপুর  পৌরসভায় গত বৃহস্পতিবার ভিজিএফের চাল বিতরণের সময় কিছু উচ্ছৃঙ্খল ব্যক্তি বিতরণের অপেক্ষায় রাখা এক টন (২০ বস্তা) লুট করে নিয়ে যায়। এতে প্রায় ২০০ ভিজিএফ কার্ডধারী চাল না পেয়ে খালি হাতে ফিরে যান। এদিকে, পার্বতীপুর পৌরসভাসহ ১০ ইউনিয়নে ভিজিএফের চাল বিতরণে ওজনে কম দেওয়ার ব্যাপক অভিযোগ উঠেছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ২০ কেজির স্থলে ১৪ থেকে ১৭ কেজি চাল দেওয়া হয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা জানান। পার্বতীপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম জানান, ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, তিনি এখনো কোনো অভিযোগ পাননি। তবে এরকম কোনো ঘটনা ঘটে থাকলে তার দায়ভার সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের। আখাউড়ায় কাউন্সিলরের শ্যালকসহ আটক ২ : ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, আখাউড়া পৌরসভার একটি ওয়ার্ডের দুস্থদের মাঝে বিতরণের ভিজিএফের প্রায় ২০ বস্তা চাল চুরির অভিযোগে এক কাউন্সিলরের শ্যালকসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. মানিক মিয়ার শ্যালক মো. জাহাঙ্গীর আলম (৩২) ও রিপন সাহা (২১)। চুরি হয়ে যাওয়া ২০ বস্তা চালের মধ্যে ১১ বস্তা উদ্ধার করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow