Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:১৬
১০ জনের দখলে বর্ডার হাট
কুড়িগ্রাম
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলার বালিয়ামারী বর্ডার হাটে সব পণ্যসামগ্রী বেচাকেনায় ১০ জন ব্যবসায়ীর দখলদারিত্বের অভিযোগ উঠেছে। এতে সাধারণ কার্ডধারী ব্যবসায়ীদের চরম ক্ষতি গুনতে হচ্ছে।

জানা গেছে, ওই ১০ জনের অনুমতি ছাড়া ক্রেতাবিক্রেতা কোনো পণ্য সামগ্রী বেচাকেনা করতে পারে না। হাটে ভারত থেকে যেসব পণ্য সামগ্রী ওঠে ওই ১০ ব্যবসায়ী সব পণ্য কিনে নেয়। একই ভাবে বাংলাদেশের যেসব বিক্রেতা রয়েছে তাদের পণ্যসামগ্রী ওই সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ভারতের কাছে বিক্রি করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে হাটে উভয় দেশের সাধারণ কোনো ক্রেতাকে হাটে পণ্য কিনতে দেওয়া হয় না।   গত বুধবার রাজীবপুরের বালিয়ামারী বর্ডারহাটে গিয়ে দেখা যায় সেখানে ভারতের সাধারণ কোনো ক্রেতা নেই। শুধুমাত্র বিক্রেতারা তাদের পণ্য নিয়ে এসেছে বিক্রি করতে। ভারতীয় অসংখ্য জিরার প্যাকেট বিক্রি করার জন্য হাটে উপস্থিত ছিলেন ভারতের বলদান গিরি এলাকার এম সালমন ও রবীন্দ্র কোচ। এরা দুজন জানালেন, হাটে কোন পণ্য বিক্রি হবে তা আগেই বাংলাদেশিরা জানিয়ে দেয়। আমরা সে অনুযায়ী পণ্য হাটে আনি। বর্ডার হাটে উপস্থিত সাধারণ ক্রেতা-বিক্রেতার অভিযোগ পেশীর জোর ও প্রশাসন ম্যানেজ করে বাংলাদেশি বাবু মিয়া, ফরিজল হক, চাঁন মিয়া, গোলাম নবী, আবদুর রশীদ মুন্সি, ওমর আলী, জহুরুল ইসলাম, ছানোয়ার হোসেন, জাবেদ আলী ও ছলেমান হোসেন নামের ১০ জনের কাছে জিম্মি বর্ডার হাট। হাট ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন মাহমুদ বলেন, ১০ জনের দখলে বর্ডার হাটের বেচাকেনা বা সিন্ডিকেট এমন অভিযোগ কেউ আমাদের কাছে করেনি। করলে অবশ্যই তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow