Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:১০
অটো ভাড়া নিয়ে মারামারি, দেড় ঘণ্টা ট্রেন বন্ধ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও সরাইলে সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। সদরে সংঘর্ষের সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট রেলপথে প্রায় দেড় ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।

পরে পুলিশ সংঘর্ষকারীদের সরিয়ে দিয়ে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করে। জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় শহরের পৌর এলাকায় কাউতলী বাসস্ট্যান্ডে ভাড়া নিয়ে দুই সিএনজি অটোরিকশা চালকের কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরে রাত সাড়ে ৮টায় সদরে মাছিহাতা ইউনিয়নের চান্দপুর ও আটলা গ্রামের লোকজন সংঘর্ষে জড়িতে পড়ে। এতে আহত হন উভয়পক্ষের ১০ জন। সংঘর্ষকারীরা ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের পাঘাচং রেলওয়ে স্টেশনে অবস্থান নিলে বন্ধ হয়ে যায় ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট রুটে ট্রেন চলাচল। এ সময় ঢাকাগামী আন্তঃনগর সোনারবাংলা এক্সপ্রেস আখাউড়ায় ও আখাউড়াগামী তিতাস কমিউটার ট্রেন আটকা পড়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী মাস্টার মাঈনুল ইসলাম জানান, রাত ১০টার দিকে স্বাভাবিক হয় এ রেলপথে ট্রেন চলাচল।   এদিকে গতকাল সকালে সরাইল উপজেলার টিঘর গ্রামে পাওনা টাকা নিয়ে সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ লাঠিপেটা ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আটক করে দুই দাঙ্গাবাজকে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow