Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৪ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৪২
বড়াইগ্রামে নৌকা সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর লুট
নির্বাচনোত্তর সহিংসতা
নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চামটা গ্রামে নৌকায় ভোট দেওয়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকরা চারটি বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর করেছে। এ সময় কৃষিপণ্য, স্বর্ণালঙ্কারসহ অন্য আসবাবপত্র লুট করে হামলাকারীরা। এলাকাবাসী জানান, গতকাল ভোররাতে চামটা গ্রামের আজমত, শিপন, রিপন ও রায়হানের নেতৃত্বে বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল কালাম আযাদের ৫০-৬০ সমর্থক ওই গ্রামের নৌকা সমর্থক ইউনুস আলী ও তার তিন ছেলে জাকির, জাফর, বকুলের বাড়িতে হামলা চালায়। ঘটনার সময় বাড়ির পুরুষ সদস্যদের অনুপস্থিতির সুযোগে তারা ভাঙচুর এবং বাড়িতে রাখা ১৫০ মণ রসুন, ৩০ মণ ধান, দুটি টিভি, পাঁচ ভরি সোনাসহ আসবাবপত্র লুটে নেয়। মহিলারা বাধা দিলে তাদের মারধর করে বলে জানা গেছে।   বড়াইগ্রাম থানার এসআই মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, এ বিষয়ে গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উল্লেখ্য, গত ২৮ মে জোনাইল ইউপি নির্বাচনের পর চামটা গ্রামে নির্বাচনী সহিংসতায় শাহাবুল ইসলাম ভুলন নামে একজন নিহত হন। হামলা-পাল্টা হামলার কারণে গ্রামের নৌকা সমর্থক কমপক্ষে ৪০টি পরিবারের পুরুষ সদস্যরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

ভাঙ্গায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৪০ : ভাঙ্গা প্রতিনিধি জানান, ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার গজারিয়া গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গতকাল আবারও সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় ১৫টি বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। আহত হন ৪০ জন। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, ভাঙ্গা পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর এমদাদুল হক বাচ্চুর সঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজ্জাক ফকিরের বিরোধ চলছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow