Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • এমপি বদিসহ মাদকের সাথে যেই জড়িত থাক না কেন সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের
  • ঈদে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ১ জুন
  • প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক ; এবার ভেনেজুয়েলার দুই কূটনীতিককে বহিষ্কার করল যুক্তরাষ্ট্র
  • পৃথিবীর হয়ে যুক্তরাষ্ট্র সিদ্ধান্ত নেবে না, রুহানির হুঙ্কার
  • ডিএসসিসির নির্দেশনা উপেক্ষা করে বেশি দামে মাংস বিক্রির অভিযোগ
  • তালিকা অনুযায়ী সব মাদক ব্যবসায়ীকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • মাদকবিরোধী অভিযানে পাঁচ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৮ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
প্রকাশ : সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৪ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১৪
ধুনটে প্রধান শিক্ষক অবরুদ্ধ, পরে মুক্ত
উপবৃত্তির টাকা আত্মসাৎ
নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগে শেহলিয়াবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখেন অভিভাবকরা। টাকা ফেরত দেওয়ার আশ্বাসে ৩ ঘণ্টা পর মুক্তি পান তিনি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে শেউলিয়াবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১১৪ শিক্ষার্থীর জন্য ৮৫ হাজার ৫০০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। শনিবার ধুনট অগ্রণী ব্যাংকের কর্মকর্তা এই টাকা সরাসরি বিতরণ না করে প্রধান শিক্ষকের হাতে তুলে দেন। এ সুযোগে প্রধান শিক্ষক আবু হাসেম প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ১০০ টাকা করে ১০ হাজার ৪০০ টাকা কর্তন করেন। এ ঘটনায় অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ হয়ে গতকাল সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত আবু হাসেমকে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখেন। অবস্থা বেগতিক দেখে তিনি টাকা ফেরত দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে মুক্তি পান। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল হাসান জানান, সরাসরি শিক্ষার্থীদের হাতে টাকা না দিয়ে শিক্ষকের কাছে দেওয়ায় এ সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অগ্রণী ব্যাংক ধুনট শাখা ব্যবস্থাপক শামীম আহম্মেদ বলেন, ব্যাংকের জনবল সংকট ও সময় স্বল্পতার কারণে টাকা শিক্ষকদের হাতে দেওয়া হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow