Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০২
ইউপি মেম্বারের স্বামীকে বেঁধে পেটালেন সাবেক চেয়ারম্যান
ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুরের নগরকান্দায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বর্তমান মেম্বারের স্বামীকে গাছে বেঁধে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার সকালে।

আহত বাবলু মোল্যাকে নগরকান্দা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে নগরকান্দা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। বিষয়টি কারও কাছে বললে দেখে নেওয়ারও হুমকি দিয়েছেন অভিযুক্তরা। ফলে বাবলু মোল্যা ও মেম্বার রেহানা বেগম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান মান্নান বলেন, ‘আমার লোকজন বাবলুকে ধরে এনে মারধর করলেও আমি জানতে পেয়ে তাকে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছি। ’ ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুস সোবহান জানান, ‘একজন সাবেক চেয়ারম্যান এ ধরনের জঘন্য কাজ করায় আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। ’ নগরকান্দা থানার ওসি বলেন, ‘বিষয়টি অমানবিক। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’ জানা যায়, সম্প্রতি পুরাপাড়া ইউনিয়নে রেশন বরাদ্দ দেয় সরকার। এলাকায় বিতরণের জন্য মেম্বার রেহানা ১০টি কার্ড পান। কার্ডগুলো সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মান্নান তার পছন্দের লোকদের বিতরণ করতে বলেন। তা না করায় মান্নান ক্ষিপ্ত হয়ে রেহানার স্বামীকে বাড়ি থেকে ধরে এনে হাত-পা ভেঙে দিতে বলেন। শুক্রবার সকালে মান্নানের ছেলে কামাল, ভাতিজা কাইয়ুমসহ ৩০-৪০ জন বাবলুকে ধরে এনে একটি মেহগনি গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটান। একপর্যায়ে বাবলু অজ্ঞান হয়ে পড়লে সবাই সটকে পড়েন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow