Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০৪
কিশোরী ধর্ষণের চিত্র ইন্টারনেটে
ঝালকাঠি প্রতিনিধি

ঝালকাঠি শহরতলিতে কিশোরীকে ধর্ষণের চিত্র ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একটি চক্রের বিরুদ্ধে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানির পর চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর, ধর্ষকের দুই খালুসহ ও এক প্রভাবশালী মিলে শালিশের নামে ১ লাখ টাকার বিনিময়ে ৩০০ টাকার স্ট্যাম্পে কিশোরী ও তার মা-বাবার স্বাক্ষর নিয়েছেন বলে জানা গেছে। চিত্রটি ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঝালকাঠির সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়ায় ঘটনার পর থেকে ভুক্তভোগী কিশোরী লজ্জা-ঘৃণায় ঘর থেকে বের হতে পারছে না। এমনকি একাধিক বার সে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলে জানা গেছে। স্থানীয় এক জনপ্রতিনিধি, সরকার দলীয় ছাত্র-যুব সংগঠনের কয়েক নেতা জানান, শহরতলির ওই কিশোরীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে একই এলাকার মনির হোসেন ওরফে ইট মনিরের ছেলে হিমেল একটি চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় কৌশলে তার এক সহযোগীকে দিয়ে ধর্ষণের চিত্র ধারণ করে সে। পরে হিমেল ও তার সহযোগীরা কিশোরীকে পুনরায় দেখা করার জন্য ডাকলে যাবে না বলে জানিয়ে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ধর্ষণের চিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয় হিমেল।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow