Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০২:৩৭
৯০০টিরও বেশি প্রযুক্তি উদ্ভাবন
বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট
গাজীপুর প্রতিনিধি

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বারি) কেন্দ্রীয় গবেষণা পর্যালোচনা ও কর্মসূচি প্রণয়ন কর্মশালা গতকাল শুরু হয়েছে। কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে ৯ দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

কর্মশালায় বারির বিভিন্ন বিভাগের প্রধানরা তাদের বিগত সময়ের গবেষণার ফলাফল ও ভবিষ্যৎ কর্ম পরিকল্পনা উপস্থাপন করেন।

কর্মশালায় জানান হয়, ইনস্টিটিউট এ পর্যন্ত ২০০টিরও বেশি ফসলের ৪৭১টি উচ্চ ফলনশীল (হাইব্রিডসহ), রোগ প্রতিরোধক্ষম ও বিভিন্ন প্রতিকূল পরিবেশ প্রতিরোধী জাত এবং ৪৫২টি অন্যান্য প্রযুক্তিসহ এ যাবত ৯০০টিরও বেশি প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছে। এ সব প্রযুক্তি উদ্ভাবনের ফলে দেশে গম, তেলবীজ, ডালশস্য, আলু, সবজি, মসলা এবং ফলের উৎপাদন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ প্রযুক্তির উপযোগিতা যাচাই বাছাই ও দেশের বর্তমান চাহিদা অনুযায়ী প্রযুক্তি উদ্ভাবনের কর্মসূচি গ্রহণ করাই এ কর্মশালার প্রধান উদ্দেশ্য। কর্মশালায় বারিসহ বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ৫ শতাধিক বিজ্ঞানী অংশগ্রহণ করেন।

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, আমাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় যে জিনিসগুলো খাবারের জন্য, পেটের ক্ষুধা নিবৃত্তির জন্য সেটা আমরা নিজেরা উৎপাদন করব। কর্মশালায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. মকবুল হোসেন এমপি, মো. আব্দুল মান্নান এমপি, মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন আব্দুল্লাহ, বারির মহাপরিচালক ড. মো. রফিকুল ইসলাম মণ্ডল, বারির পরিচালক (গবেষণা) ড. মোহাম্মদ জালাল উদ্দীন, বারির পরিচালক (সেবা ও সরবরাহ) ড. বীরেশ কুমার গোস্বামী।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow