Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৩:৩১
শার্শায় চাল বিক্রির কার্ড নিয়ে চেয়ারম্যান-ডিলার সংঘর্ষ
বেনাপোল প্রতিনিধি

শার্শায় ১০ টাকা কেজিতে চাল বিক্রির কার্ড বিতরণকে কেন্দ্র করে কায়বা ইউনিয়ন পরিষদেও চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহম্মেদ টিংটু ও শার্শা উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া ফেরদৌসীর স্বামী শাহাজান আলমের মধ্যে সংঘর্ষের কারণে ইউনিয়নের ৩টি ওয়ার্ডে কার্ড বিতরণ বন্ধ হয়ে গেছে। গতকাল পুনরায় কার্ড বিতরণ করলেও ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোনো মুহূর্তে চেয়ারম্যান গ্রুপ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধতে পারে বলে আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী। জানা গেছে, বুধবার প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতির ১০ টাকা কেজিতে চালের কার্ড বিতরণের দিন ধার্য ছিল। প্রতিটি ইউনিয়নে ডিলারের মাধ্যমে ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যান মনোনীত হতদরিদ্রদের মাঝে ৪ কপি ছবি ও ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি যুক্ত কার্ডের মাধ্যমে জনপ্রতি ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হবে। কায়বা ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের ডিলার নিযুক্ত হন শার্শা উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া ফেরদৌসীর স্বামী শাহাজান আলম। বুধবার চালের কার্ড বিতরণের দিন ডিলার শাহাজান আলম ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যানের কাছে চাল বিতরণকারীদের নামের তালিকা ও কার্ড চাইলে চেয়ারম্যান বাড়ি বাড়ি গিয়ে ছবি তুলে কার্ড তৈরি করে নিতে বলে। এ সময়  চেয়ারম্যানের সঙ্গে ডিলার শাহাজান আলমের বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow