Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ অক্টোবর, ২০১৬ ২২:৫৭
দেড় বছরের শিশু নিয়ে প্রতিবন্ধী মা জেলহাজতে
শেরপুর প্রতিনিধি

কানের দুল চুরি ও মারামারির মামলায় ১৩ দিন ধরে দেড় বছরের শিশু নিয়ে এক প্রতিবন্ধী মা শেরপুর জেলখানায় হাজত বাস করছেন। তার নাম জেসমিন, বাড়ি জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার বগারচর ইউনিয়নের খাসির গ্রামে। স্বামীর নাম জাহান আলী। কাগজে তার বয়স ১৮ লিখলেও জেসমিন জানিয়েছে তার বয়স ১৫ বছর। প্রতিবন্ধী এই মা ঠিকমতো কথা বলতে পারেন না। মুখ দিয়ে লালা ঝরে। খাওয়া-দাওয়া কাপড়-চোপড় ও শিশু বাচ্চাটি নিয়ে তার কোনো অনুভূতি নেই। জন্ম থেকেই সে প্রতিবন্ধী ও বাম হাতে সমস্যা রয়েছে। শিশুটিকে মাঝে মধ্যেই চিনে না। স্থানীয় ইউপি সদস্য রেজাউল করিম বলেছেন, মেয়েটি প্রতিবন্ধী সবাই জানে। কীভাবে তার বিরুদ্ধে মামলা ও চার্জশিট হলো আমরা জানি না। শেরপুর কারাগারের জেল সুপার মজিবুর রহমান জানিয়েছেন, মনে হচ্ছে সে মানসিক ভারসাম্যহীন। খাবার দিলে খায় না, চুপ থাকে। আকুতি করে সে কখন বাড়ি যাবে। ২২ সেপ্টেম্বর জেসমিনের দেড় বছরের দুধের বাচ্চা ‘জীবন’ ঠাণ্ডাজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়লে জেলখানা কর্তৃপক্ষের সহায়তায় শেরপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসার পর এখন ভালো আছে। জানা গেছে, প্রতিবেশী সাহজাহান আলী ও  জেসমিনের স্বামীর মধ্যে জমিজমা নিয়ে মারামারি হয়। এ ঘটনায় মারামারি ও কানের সোনার দুল চুরির অভিযোগ এনে ২০১৫ সালের ১৩ অক্টোবর সাহজাহান বাদী হয়ে বকশীগঞ্জ থানায় জাহান আলী, তার মা ময়না বেগম ও জাহানের স্ত্রী জেসমিনকে আসামি করে মামলা করে। মামলায় অন্যরা হাজিরা দিলেও জেসমিন হাজিরা দেয়নি। ইতিমধ্যে মামলাটির চার্জশিট হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow