Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • দক্ষিণ কোরিয়ার সাংবাদিকদের নিজস্ব পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্র পরিদর্শনের অনুমতি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া
  • সাতক্ষীরায় বিরল রোগে আক্রান্ত কিশোরী মুক্তামণি বুধবার সকালে মারা গেছে
  • সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে আট জেলায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৯
  • যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প বলেছেন, ১২ জুন সিঙ্গাপুরে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে পূর্বনির্ধারিত বৈঠকটিও নাও হতে পারে
  • সুন্দরবনের ৩ জলদস্যু বাহিনীর ৫৭ সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন
প্রকাশ : বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০৩:২০
মাদক ব্যবসায়ী ধরতে মাইকিং
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকায় মঙ্গলবার ভোরে ‘ডাকাত সরদার’ দেলোয়ার হোসেন ওরফে মাস্টার দেলুকে গ্রেফতার অভিযান চালিয়েছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। এ সময় ওই এলাকায় মাইকিং করে স্থানীয়দের সহযোগিতাও কামনা করেন পুলিশ সদস্যরা। এতে মাস্টার দেলুকে ধরতে না পারলেও তার সহযোগী ‘বোমাবাজ’ কবির হোসেন ডলারকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম জানান, গত ৩০ সেপ্টেম্বর ভোরে খানপুর এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিলসহ শীর্ষ ডাকাত সর্দার দেলোয়ার হোসেন দেলু ওরফে মাস্টার দেলুর স্ত্রীসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়। ওই অভিযানে ছিলেন ডিবির পাঁচ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান, মাজহারুল ইসলাম, সেলিম মিয়া, আসাদুজ্জামান। গ্রেফতারকৃতদের নিয়ে চলে আসার পথে ডিবির সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা ছুড়ে দেলু বাহিনীর লোকজন। এ সময় পুলিশও ১২ রাউন্ড গুলি ছুড়ে। দুই পক্ষের গোলাগুলির একপর্যায়ে দেলু ও তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ হয় ডিবির এসআই মনিরুজ্জান মনির। ওই ঘটনায় মাস্টার দেলুসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলাও হয়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ভোরে পশ্চিম তল্লা এলাকায় মাস্টার দেলুকে গ্রেফতার অভিযান চালানো হয়।

জানা গেছে— দেলুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় দুই ডজন মামলা রয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow